দেশে বেকারত্বের হার ৮.৩০%, গত ১৬ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ - CMIE

ডিসেম্বরে দেশে বেকারত্বের হার দাঁড়িয়েছে ৮.৩০ শতাংশ। যেখানে নভেম্বরে এই হার ছিল ৮ শতাংশ। সেন্টার ফর মনিটারিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি (CMIE) প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত ১৬ মাসে এটিই বেকারত্বের সর্বোচ্চ হার।
ছবি- প্রতীকী
ছবি- প্রতীকীছবি সংগৃহীত

ভারতে বেড়ে চলেছে বেকারত্বের হার। গত মাসে (ডিসেম্বরে) দেশে বেকারত্বের হার দাঁড়িয়েছে ৮.৩০ শতাংশ। যেখানে নভেম্বরে এই হার ছিল ৮ শতাংশ। রবিবার ‘সেন্টার ফর মনিটারিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি’ (CMIE) যে পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে, তাতে জানা যাচ্ছে, গত ১৬ মাসের এটিই বেকারত্বের সর্বোচ্চ হার।

CMIE-এর দেওয়া তথ্য অনুসারে, দেশের শহরাঞ্চলে বেকারত্বের হার ডিসেম্বরে বেড়ে ১০.০৯ শতাংশে দাঁড়িয়েছে, যা আগের মাসে (নভেম্বরে) ৮.৯৬ শতাংশ ছিল। অন্যদিকে, গ্রামীণ এলাকায় বেকারত্বের হার কিঞ্চিৎ কমেছে। নভেম্বরে গ্রামে যেখানে বেকারত্বের হার ছিল ৭.৫৫ শতাংশ, ডিসেম্বরে সেই হার কমে হয়েছে ৭.৪৪ শতাংশ।

তবে, বেকারত্বের এই হার বৃদ্ধি নিয়ে আশঙ্কার কিছু দেখছেন না CMIE-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর মহেশ ব্যাস। সংবাদমাধ্যম রয়টার্সকে তিনি জানান, ‘বেকারত্বের হার বৃদ্ধি যতটা খারাপ মনে হয়, বিষয়টা কিন্তু ততটা খারাপ নয়। কারণ, গত ডিসেম্বরে কাজে শ্রমিকের অংশগ্রহণের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০.৪৮ শতাংশে। যা ২০২২ সালের জানুযারি থেকে ধরলে সর্বোচ্চ।’

একইসঙ্গে তিনি জানান, ‘সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, কর্মসংস্থানের হার ডিসেম্বরে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৭.১ শতাংশে। যা আবার ২০২২ সালের জানুয়ারির পর থেকে সর্বোচ্চ।’

এই ব্যাপারটি আশাব্যঞ্জক হলেও, সামনে রয়েছে একাধিক চ্যালেঞ্জ। নতুন বছরে দেশজুড়ে মুদ্রাস্ফীতি এবং বেকারত্বের হার বৃদ্ধি মোকাবিলা করাই কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে অন্যতম বড় পরীক্ষা হতে চলেছে।

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি, ভারতের জিডিপি হ্রাস, বেকারত্ব নিয়ে আগেই সরব হয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। গত শনিবার, ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’ কালে তিনি দাবি তোলেন, ‘জিডিপি (GDP) বৃদ্ধি থেকে শুরু করে কর্মসংস্থান, যুবদের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং বানিজ্যে রপ্তানির সম্ভাবনার সাথে উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধির দিকে নজর দিতে হবে সরকারকে।’

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in