সাংবাদিক সিদ্দিক কাপ্পানকে ৫ দিনের অন্তর্বর্তী জামিন দিলো শীর্ষ আদালত

মৃত্যুশয্যায় থাকা মা-কে দেখতে যাওয়ার জন্য শর্তসাপেক্ষে তাঁকে জামিন দিয়েছে আদালত। গত বছর অক্টোবর মাসে উত্তরপ্রদেশের হাথরস গণধর্ষণ কাণ্ডের পর ঘটনাস্থলে যাওয়ার পথে কাপ্পানকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
সাংবাদিক সিদ্দিক কাপ্পানকে ৫ দিনের অন্তর্বর্তী জামিন দিলো শীর্ষ আদালত
সাংবাদিক সিদ্দিক কাপ্পানফাইল ছবি সংগৃহীত

গত পাঁচ মাস ধরে মথুরাতে জেলবন্দী থাকা কেরলের সাংবাদিক সিদ্দিকি কাপ্পানের পাঁচদিনের অন্তর্বর্তী জামিন মঞ্জুর করলো সুপ্রিম কোর্ট। মৃত্যুশয্যায় থাকা ৯০ বছর বয়সী মা-কে দেখতে যাওয়ার জন্য শর্তসাপেক্ষে তাঁকে জামিন দিয়েছে আদালত। গত বছর অক্টোবর মাসে উত্তরপ্রদেশের হাথরস গণধর্ষণ কাণ্ডের পর ঘটনাস্থলে যাওয়ার পথে কাপ্পানকে গ্রেফতার করে যোগী সরকারের পুলিশ।

কেরালা সফরকালে সংবাদমাধ্যমের সাথে কথা বলা বা সোশ্যাল মিডিয়াতে কোনো পোস্ট করতে পারবেন না কাপ্পান। আত্মীয়, চিকিৎসক এবং মায়ের স্বাস্থ্যের সাথে যুক্ত ব‍্যক্তি ছাড়া অন্য কারো সাথে সাক্ষাৎ করতে পারবেন না। এমনটাই জানিয়েছে আদালত। কাপ্পানকে মথুরা থেকে কেরালার মালপ্পুরমে তাঁর নিজের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া এবং পাঁচদিন পরে সেখান থেকে নিয়ে আসা - সম্পূর্ণ দায়িত্ব উত্তরপ্রদেশ পুলিশের হাতে দিয়েছে আদালত।

গত বছর ৫ অক্টোবর হাথরসে এক দলিত তরুণীর গণধর্ষণ ও মৃত্যুর ঘটনার খবর করতে যাওয়ার পথে গ্রেফতার করা হয় সিদ্দিকি কাপ্পানকে এবং সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কিত এক আইনে অভিযুক্ত করে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। তখন থেকেই মথুরা জেলে বন্দি রয়েছেন তিনি।

কাপ্পানের এই গ্রেফতারিকে চ‍্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে তাঁর জামিনের আবেদন দায়ের করে কেরালা ইউনিয়ন অফ ওয়ার্কিং জার্নালিস্ট। তাদের অভিযোগ, জেলের মধ্যে কাপ্পানের ভিতর অত‍্যাচার করা হচ্ছে। এই সংস্থার হয়ে আদালতে লড়ছেন বিশিষ্ট আইনজীবী তথা কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল। এর আগে একাধিকবার কাপ্পানের জামিনের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে আদালত। গত মাসে তাঁর মা অজ্ঞান হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ায় কপিল সিব্বলের অনুরোধে ভিডিও কলে মায়ের সাথে কথা বলার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল কাপ্পানকে।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in