Toolkit বিতর্ক - জে পি নাড্ডা এবং সম্বিৎ পাত্রের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করবে কংগ্রেস

সম্বিৎ পাত্র কংগ্রেসের প্রতীক ব্যবহার করে এক ট্যুইটে বলেন, টুলকিট ব্যবহার করে কংগ্রেস প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চাইছে। কংগ্রেস জানায় সম্বিৎ পাত্রের এই তথ্য সম্পূর্ণ ‘ভুয়ো’।
Toolkit বিতর্ক - জে পি নাড্ডা এবং সম্বিৎ পাত্রের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করবে কংগ্রেস
সম্বিৎ পাত্র ও জে পি নাড্ডাফাইল ছবি সংগৃহীত

বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা এবং বিজেপি মুখপাত্র সম্বিৎ পাত্রের বিরুদ্ধে এফ আই আর দায়ের করতে চলেছে কংগ্রেস। এদিন সম্বিৎ পাত্র কংগ্রেসের প্রতীক ব্যবহার করে এক ট্যুইট করে দাবি করেন, এই টুলকিট ব্যবহার করে কংগ্রেস প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চাইছে। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় সম্বিৎ পাত্রের ব্যবহার করা এই তথ্য সম্পূর্ণ ‘ভুয়ো’। এরপরেই কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এফ আই আর দায়ের করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এর আগে বিজেপি মুখপাত্র সম্বিৎ পাত্র এক ট্যুইটে দাবি করেন – কংগ্রেসের পক্ষ থেকে তাদের সোশ্যাল মিডিয়া স্বেচ্ছাসেবকদের 'Modi Strain' শব্দটি ব্যবহার করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে।

ওই ট্যুইটে সম্বিৎ পাত্র আরও দাবি করেন – রাহুল গান্ধী মহামারীর এই সুযোগকে ব্যবহার করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাবমূর্তি ধ্বংস করার খেলায় মেতেছেন। কংগ্রেস কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন করোনা স্ট্রেনকে 'Modi Strain' বলে প্রচার করার জন্য। বিদেশী সংবাদমাধ্যম, সাংবাদিকদের ব্যবহার করে ভারতকে কালিমালিপ্ত করার চেষ্টা চলছে।

সম্বিৎ পাত্রের এই দাবি সম্পূর্ণ অস্বীকার করে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে #BJPLiesIndiaCries হ্যাসট্যাগ ব্যবহার করে বলা হয় – যদি বিজেপির কাছে মানুষকে সাহায্য করার সময় ও চেষ্টা থাকতো তাহলে এই ধরণের মিথ্যা ছড়াতে হত না। আমাদের সরকার মানুষকে রক্ষা করার বদলে বিরোধীদের নামে কুৎসা করতে বেশি আগ্রহী। ধিক্কার জানানোর ভাষা নেই।

এআইসিসি-র পক্ষ থেকে রাজীব গৌড়া এক বিবৃতিতে জানান – বিজেপি কোভিড অব্যবস্থা প্রসঙ্গে এক ফেক টুলকিট ব্যবহার করেছে এবং এর জন্য কংগ্রেসের রিসার্চ বিভাগকে দায়ী করেছে। আমরা এই ঘটনায় জে পি নাড্ডা এবং সম্বিৎ পাত্রের বিরুদ্ধে ভুয়ো তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে এফ আই আর দায়ের করতে চলেছি। যখন আমাদের দেশ কোভিডের ধাক্কায় বিপর্যস্ত সেই সময় মানুষের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করার পরিবর্তে বিজেপি জালিয়াতির আশ্রয় নিচ্ছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in