বাড়ল রবি শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য, বৃদ্ধির হার গত ১২ বছরে সবচেয়ে কম

বৃদ্ধির হার ২.১৪ শতাংশ। যা গত ১২ বছরের সবচেয়ে কম।কেন্দ্রের এই বৃদ্ধিকে নামমাত্র আখ্যা দিয়েছে সংযুক্ত কিষান মোর্চা।
বাড়ল রবি শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য, বৃদ্ধির হার গত ১২ বছরে সবচেয়ে কম
ছবি - প্রতীকী

ফসলের সরকারি সংগ্রহ মূল্য ঘোষণা করল কেন্দ্র। ছয়টি রবিশস্যের সংগ্রহমূল্য ঘোষণার সঙ্গে অবশ্য খেদ প্রকাশ করেছে সারা ভারত কৃষক সভা-সহ অন্যান্য সংগঠন। তাদের বক্তব্য, গমের মতো গুরুত্বপূর্ণ ফসলেও সংগ্রহ মূল্য মাত্র ২.০৩ শতাংশ বেড়েছে। তারা এই মূল্য আরও বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন। যদিও প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে এই সংগ্রহ মূল্যকে সর্বোচ্চ বৃদ্ধি বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

সারা ভারত কৃষক সভার বলছে, আগেরবার গমের সরকারি সংগ্রহ মূল্য ছিল কুইন্টাল পিছু ১৯৭৫ টাকা। এবার দেওয়া হচ্ছে ২০১৫ টাকা। সংগ্রহ মূল্য বৃদ্ধির হার ২.১৪ শতাংশ। যা গত ১২ বছরের সবচেয়ে কম। আর পাঁচটা ফসলেও বৃদ্ধির হার গত বছরের তুলনায় ঘোরাফেরা করেছে ২.১৪ শতাংশ থেকে ৮.৬০ শতাংশে। কেন্দ্রের এই বৃদ্ধিকে নামমাত্র আখ্যা দিয়েছে সংযুক্ত কিষান মোর্চাও।

শীতে ফসল বোনা শুরু হলে দাম আরও বাড়বে বলে কৃষক নেতারা মনে করিয়ে দিচ্ছেন। ডিজেলের মতো জ্বালানির দাম হিসেবে রাখলে গত বছরের তুলনায় ৪ শতাংশ সংগ্রহ মূল্য কমে গেছে। কৃষকসভা বলছে এমএস স্বামীনাথনের নেতৃত্বাধীন কৃষক কমিশনের সুপারিশ মতো সংগ্রহ মূল্য হিসেবে করা হয়নি। কারণ প্রকৃত খরচ হিসাবে ধরা হয়নি।

কৃষক সভার হিসাব গত বছর গমে খরচ হয়েছিল ২১৯৫.৫০ টাকা কুইন্টাল প্রতি। তা স্বীকার করেনি কেন্দ্র। এবার যে দাম ঘোষণা করেছে তা কুইন্টালে ১৮০ টাকা কম। অন্যান্য ফসলের ক্ষেত্রেও একই ভাবে দাম ধার্য করা হয়েছে। এর সঙ্গে উপকরণের দাম বৃদ্ধি হিসাব করলে প্রকৃত খরচের সঙ্গে সংগ্রহ মূল্যের ঘাটতি আরও প্রকট হবে। আইনি অধিকার স্বীকৃত না হলে এমএসপি ঘোষণা একপ্রকার অর্থহীন বলে তারা মনে করেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in