সরকার মুখে আলোচনার কথা বললেও আলোচনার প্রস্তাব দিচ্ছে না - অভিযোগ আন্দোলনরত কৃষক সংগঠনের

সরকার মুখে আলোচনার কথা বললেও আলোচনার প্রস্তাব দিচ্ছে না - অভিযোগ আন্দোলনরত কৃষক সংগঠনের
ফাইল ছবি সংগৃহীতছবি সৌজন্য - ন্যাশনাল হেরাল্ড

প্রধানমন্ত্রী নতুন কৃষি আইন নিয়ে কৃষকদের কথা শোনার জন্য একটি ফোনের কথা যতই বলুন না কেন, আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার কোনও সমাধান কোনও চেষ্টাই করছে না। ফের একবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়ে এমনটাই জানিয়েছে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা।

কৃষক নেতা দর্শন পল জানিয়েছেন, 'সরকার বলে আসছে, একটা ফোন করলেই কেন্দ্রের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব। কিন্তু কোনও প্রস্তাবই আনছে না। আমাদের সঙ্গে আলোচনায় বসার সময় ও স্থানও জানাচ্ছে না। আমরা তৈরি আছি আলোচনার জন্য, আমাদের কোনও অসুবিধা নেই ফের আলোচনায় বসার।'

হরিয়ানা ভারতীয় কিষান ইউনিয়নের প্রধান গুরনাম সিং চাদুনি জানিয়েছেন, কেন্দ্রর সঙ্গে দ্বাদশ দফার আলোচনায় রাজি কৃষক ইউনিয়নগুলো। কিন্তু সরকারের বলা কথা এখন রসিকতায় পরিণত হয়েছে। সেই রসিকতাকে বাস্তবে পরিণত হতে দেখা যাচ্ছে না।

অন্যদিকে, কৃষক নেতা দর্শন পল প্রধানমন্ত্রীর 'আন্দোলনজীবী' মন্তব্যের পাল্টা দিয়ে বলেন, এটি অনেক বড় আন্দোলন, সারা দেশের মানুষের সমর্থন রয়েছে এতে। কিন্তু আমাদের আন্দোলনজীবী হিসেবে আখ্যা দেওয়া হচ্ছে। এইধরনের কথা তাঁরা সংসদে বলছেন! এই আন্দোলনকে ছোট করে দেখার সরকারের যে মনোভাব, তা এতে স্পষ্ট হয়েছে। তাদের ভালোবাসা দেশের প্রতি অনুগতদের জন্য নেই, বরং কপোর্রেটদের জন্য রয়েছে।

ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের মুখপাত্র রাকেশ টিকাইত শুক্রবার একপ্রকার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, যতক্ষণ পর্যন্ত ৩টি কৃষি আইন প্রত্যাহার না করা হচ্ছে, ততক্ষণ তারা আন্দোলন ছাড়বেন না।

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in