অবসর নিলেন সুনীল অরোরা, মুখ্য নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব নিলেন সুশীল চন্দ্র

অবসর নিলেন সুনীল অরোরা, মুখ্য নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব নিলেন সুশীল চন্দ্র

রাজস্থান ও ভারত সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদ সামলে সুনীল অরোরা ২০১৯-র সেপ্টেম্বর মাসে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিযুক্ত হন। তাঁকে সেন্ট্রাল বোর্ড অব ডিরেক্ট ট্যাক্সের চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরিয়ে এই পদে আনা হয়

বদল হল মুখ্য নির্বাচন কমিশনার। আজ থেকে এই দায়িত্বভার নিয়েছেন সুশীল চন্দ্র। তিনি বিদায়ী মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরার স্থলাভিষিক্ত হলেন। বাংলায় বিধানসভা নির্বাচন চলাকালীন এই বদল ঘটল। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ২৪তম মুখ্য নির্বাচন কমিশনার হিসেবে তাঁকে নিযুক্ত করেছেন।

রাজস্থান এবং ভারত সরকারের বহু গুরুত্বপূর্ণ পদ সামলে সুনীল অরোরা ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিযুক্ত হন। তাঁকে সেন্ট্রাল বোর্ড অব ডিরেক্ট ট্যাক্সের চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরিয়ে এই পদে আনা হয়। বাংলার ভোট ঘোষণার দিনই একপ্রকার আবেগঘন ভাষায় সুনীল অরোরা জানিয়েছিলেন, 'মুখ্য নির্বাচন কমিশনার হিসেবে এটাই তাঁর শেষ সাংবাদিক বৈঠক।' সোমবার তিনি অবসর গ্রহণ করেন।

অরোরার অধীনে ২০১৯ লোকসভা-সহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন পরিচালনা করেছে কমিশন। তাঁর আমলে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে বহুবার প্রশ্ন উঠেছে। তাঁর বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগ উঠেছে। প্রশ্নের মুখে পড়েছে ইভিএমও। আবার তাঁর আমলেই ভিভিপ্যাটের ব্যবহার ব্যাপক হারে শুরু হয়েছে।

সুশীল চন্দ্র ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে কাজ করছেন। তিনি ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগেই ভোট প্রক্রিয়ায় যুক্ত হন। অরোরার পর তিনিই সবচেয়ে অভিজ্ঞ কমিশনার হওয়ায় তাঁকে মুখ্য নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। তাঁর মেয়াদকাল ২০২২ সালের ১৪ মে পর্যন্ত। বাংলার শেষ চার দফা নির্বাচন এবং আগামী দিনে উত্তরপ্রদেশ, পঞ্জাব, গোয়া, মণিপুর, এবং উত্তরাখণ্ডের নির্বাচনও তিনিই পরিচালনা করবেন। উত্তরপ্রদেশ সরকারের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী বছরের ১৪ মে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in