গতবছরের তুলনায় এ বছর কমতে পারে মশলা, আলু, টম্যাটো, লঙ্কার ফলন - অনুমান কৃষি বিভাগের

২০২০-২১ সালের তুলনায় ৫৬.১৭ মেট্রিক টনের তুলনায় আলু উৎপাদন কমে ৫৩.৫৮ মেট্রিক টন হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। আলুর মতই টম্যাটো উৎপাদনও কমতে পারে বলে জানানো হয়েছে কৃষি বিভাগের তথ্যে।
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি নিজস্ব চিত্র

বহু গুরুত্বপূর্ণ মশলা, আলু, টমেটো এবং কাঁচা এবং শুকনো লঙ্কার উৎপাদন ২০২০-২১ সালের তুলনায় ২০২১-২২ সালে কম হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত তথ্য থেকে একথা জানা গেছে।

বিভিন্ন রাজ্যের সাম্প্রতিক প্রাপ্ত তথ্য এবং অগ্রিম অনুমান অনুসারে ফল, শাকসবজি এবং মধু উৎপাদনে একটি সাধারণ বৃদ্ধি প্রত্যাশিত হলেও গতবছরের তুলনায় মশলা, ফুল, সুগন্ধি এবং ঔষধি গাছ এবং বৃক্ষরোপিত ফসলের উৎপাদন হ্রাস পাবে।

কৃষি ও কৃষক কল্যাণ বিভাগের তথ্য অনুসারে ২০২১-২২ সালে সামগ্রিক মোট হর্টিকালচার উৎপাদন ৩৪১.৬৩ মিলিয়ন টন (MT) অনুমান করা হয়েছে, যা ২০২০-২১ সালের উৎপাদনের তুলনায় প্রায় ৭.০৩ MT বা ২.১০ শতাংশ বেশি।

তথ্য অনুসারে, ২০২০-২১ সালে ২৬.৬৪ মেট্রিক টন পেঁয়াজ উৎপাদন বেড়ে ৩১.৭০ মেট্রিক টন হবে বলে অনুমান করা হয়েছে। যদিও ২০২০-২১ সালের তুলনায় ৫৬.১৭ মেট্রিক টনের তুলনায় আলু উৎপাদন কমে ৫৩.৫৮ মেট্রিক টন হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। আলুর মতই টম্যাটো উৎপাদন ২১.১৮ মেট্রিক টনের তুলনায় এবছর অনেকটাই কমে ২০.৩৪ মেট্রিক টন হবে বলে অনুমান।

কাঁচা লঙ্কার জন্য, গত বছর ৪.৩ মেট্রিক টনের তুলনায় এ বছর ৪.২ মেট্রিক টন এবং শুকনো লঙ্কার ক্ষেত্রে উৎপাদন গতবছরের ২ মেট্রিক টনের তুলনায় এবছর ১.৮ মেট্রিক টন হতে পারে বলে অনুমান।

এই অনুমানগুলি বাজারের দামের উপর প্রভাব ফেলবে কিনা জানতে চাইলে আলু এবং পেঁয়াজ বণিক সমিতির প্রধান রাজেন্দ্র শর্মা বলেন: "এগুলি মার্চ ২০২২ পর্যন্ত পরিসংখ্যান যা সরকার এখন প্রকাশ করেছে। কাজেই বর্তমান বাজারে এই তথ্যের প্রভাব পড়ার সম্ভাবনা কম।"

শর্মা, যিনি দিল্লির ফেডারেশন অফ ফ্রুট অ্যান্ড ভেজিটেবল ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনের প্রাক্তন সভাপতি, তিনি আরও জানিয়েছেন, বাজারের বর্তমান পণ্যগুলি অক্টোবর পর্যন্ত ব্যবহার করা হবে। কারণ বৃষ্টির মাসে বাজারে সেভাবে নতুন কোনও পণ্য আসবে না।

সামগ্রিকভাবে, ২০২০-২১ সালে ১০২.৪৮ মেট্রিক টন ফলের উৎপাদন ১০৭.১০ মেট্রিক টন হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। ২০২০-২১ সালে ২০০.৪৫ মেট্রিক টনের তুলনায় সবজির উৎপাদন ২০৪.৬১ মেট্রিক টন হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

মসলার মধ্যে জোয়ান, এলাচ, দারুচিনি, ধনে, জিরা, জায়ফল এবং গোলমরিচের উৎপাদন আগের বছরের তুলনায় কম হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

কৃষি বিভাগের তথ্য অনুসারে সমস্ত প্রধান বৃক্ষরোপণ ফসল – কাঠবাদাম, কাজুবাদাম এবং নারকেল - এর উৎপাদনও আগের বছরের তুলনায় কম বলে অনুমান করা হচ্ছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in