করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রবল আর্থিক সঙ্কটে রেলের মালবাহকরা

লকডাউনের সময় ভয়াবহ ছিল পরিস্থিতি। এবার ফের একবার সেই পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হচ্ছে লখনউয়ের মালবাহকদের।
করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে প্রবল আর্থিক সঙ্কটে রেলের মালবাহকরা
ছবি- দ্য ট্রিবিউন

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে জেরবার দেশ। বাড়তে থাকা করোনা সংক্রমণের কারণে রেলওয়েতে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এর ফলে প্রবল সমস্যায় পড়েছেন রেলওয়ের মালবাহকরা। লখনউ ও উত্তরপ্রদেশের অন্যান্য স্টেশনের অন্যান্য দরিদ্র মালবাহকদের অবস্থা আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে।

করোনার প্রথম ঢেউয়ের সময় থেকেই দুর্বিষহ অবস্থা ছিল মালবাহকদের। কাজ না থাকায় জীবনযাত্রার পাশাপাশি বাচ্চাদের পড়াশোনা, চিকিৎসার অবস্থাও করতে পারছিলেন না। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আসায় পরিস্থিতি আরও গুরুতর হয়েছে। এখন পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফিরছেন। শ্রমিকরা নিজেদের জিনিসপত্র নিজেরাই বয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, কখনও কখনও অসহায় পরিযায়ী শ্রমিকদের জিনিসপত্র বয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কোনো পয়সা নিচ্ছেন না মালবাহকরা। ফলে মালবাহকরা অর্থ সংস্থানের কোনও উপায়ই আর দেখছেন না।

একে ঋণে জর্জরিত অবস্থা, তার ওপর করোনার এই দ্বিতীয় ঢেউ। যার ফলে তাদের একমাত্র আয়ের উৎসের উপর বড়সড় প্রভাব ফেলেছে। গত এক বছরে করোনার কারণে এমনিতেই কাজের অভাবে আয়ের পরিমাণ খুবই সামান্য ছিল তাঁদের। লকডাউনের সময় তো আরও ভয়াবহ ছিল পরিস্থিতি। এবার ফের একবার সেই পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হচ্ছে লখনউয়ের মালবাহকদের।

এই প্রসঙ্গে ন্যাশনাল ফেডারেশন অফ রেলওয়ে পোর্টারসের তরফে রেল মন্ত্রক ও নর্দার্ন রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজারের কাছে একটি চিঠি লেখা হয়েছে। যাতে এইসব মালবাহকদের ন্যূনতম চাহিদা পূরণ করতে সাহায্য করে রেল। মালবাহকদের চিকিৎসা ব্যবস্থা, বাচ্চাদের পড়াশোনার দেখভালের পাশাপাশি তাদের খাদ্যের চাহিদা পূরণ করার মতো ব্যবস্থা করার কথা উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in