RS Polls: রাজ্যসভার ভোট, ৪ রাজ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই, ঘোড়া কেনাবেচা আটকাতে রাজস্থানে বন্ধ ইন্টারনেট

বিভিন্ন রাজ্যের বিধানসভায় সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয়েছে ভোট। চলবে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত। কর্ণাটক, রাজস্থান, মহারাষ্ট্র এবং তেলেঙ্গানায় উত্তেজনা তুঙ্গে উঠেছে আজ।
RS Polls: রাজ্যসভার ভোট, ৪ রাজ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই, ঘোড়া কেনাবেচা আটকাতে রাজস্থানে বন্ধ ইন্টারনেট
সংসদ ভবনফাইল ছবি সংগৃহীত

জুন মাস পেরোলেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। তার আগে রাজ্যসভার আসন বাড়িয়ে নিতে বিভিন্ন রাজ্যে সম্মুখ সমরে নেমেছে বিজেপি ও কংগ্রেস। বিশেষ করে কর্ণাটক, রাজস্থান, মহারাষ্ট্র এবং তেলেঙ্গানায় উত্তেজনা তুঙ্গে উঠেছে আজ।

১০ জুন, শুক্রবার রাজ্যসভা নির্বাচন হবে, দিনক্ষণ আগে থেকেই ঠিক ছিল। সেইমতো বিভিন্ন রাজ্যের বিধানসভায় সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয়েছে ভোট। চলবে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত।

রাজ্যসভা নির্বাচন ঘিরে রাজস্থানে কয়েকদিন ধরে চলছে একের পর এক 'নাটক'। গতকালই উদয়পুরে 'রিসর্ট বন্দি' কংগ্রেস বিধায়কদের ভোট দানের জন্য জয়পুরের আমের এলাকার হোটেল লীলাতে নিয়ে আসা হয়েছে। তারপরেই আমের এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফে। জানা যাচ্ছে, নির্বাচনের আগে ঘোড়া কেনাবেচা রুখতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে অশোক গেহলট সরকার।

সূত্রের খবর, আজ মূলত ১৬ টি রাজ্যসভার আসনের জন্য বিভিন্ন রাজ্যে ভোটগ্রহণ চলছে। এর আগে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ৪১ জন প্রার্থী। জুলাই মাসে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আগে রাজ্যসভা এই নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

১৫ রাজ্য থেকে মোট ৫৭ টি রাজ্যসভার খালি আসনের জন্য মনোনয়ন পেশ করেছিলেন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা। তবে ৪১ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এরমধ্যে বিজেপির দখলে গিয়েছে ২৩ টি আসন, কংগ্রেসের দখলে ৮ টি আসন এবং বাকি ১০ টি আসন দখল করেছে অন্যান্য দলেরা।

রাজ্যভিত্তিক রাজ্যসভার খালি আসনের সংখ্যা

  • উত্তরপ্রদেশে - ১১ টি আসন

  • মহারাষ্ট্র ও তামিলনাড়ুতে যথাক্রমে - ৬ টি করে আসন

  • বিহারে - ৫ টি আসন

  • কর্ণাটক, রাজস্থান ও অন্ধ্রপ্রদেশে যথাক্রমে - ৪ টি করে আসন

  • মধ্যপ্রদেশ ও ওড়িশায় যথাক্রমে - ৩টি করে আসন

  • পাঞ্জাব, ঝাড়খণ্ড, হরিয়ানা, ছত্তিশগড় ও তেলেঙ্গানা থেকে যথাক্রমে - ২ টি করে আসন এবং উত্তরাখণ্ডে - ১ টি খালি আসনে মনোনয়ন পেশ হয়েছে।

২০২২ সালের রাজ্যসভা নির্বাচনে যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এবং পীযূষ গোয়েল, কংগ্রেসের রণদীপ সুরজেওয়ালা, জয়রাম রমেশ এবং মুকুল ওয়াসনিক এবং শিবসেনার সঞ্জয় রাউত।

১৯৯০ সালের পর এই প্রথম রাজ্যসভায় ১০০ টি আসন অতিক্রম করেছে বিজেপি। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এই সংখ্যা বিজেপিকে অনেক সাহায্য করবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in