RS Election: 'আমি কংগ্রেসকে পছন্দ করি', কর্ণাটকে রাজ্যসভা নির্বাচনে 'ক্রস ভোটিং'

উত্তেজনা, আতঙ্ক, সতর্কতা সবকিছুই ছিল রাজ্যসভা নির্বাচন ঘিরে। তারপরেও কর্ণাটকে রোখা গেলা না 'ক্রস ভোটিং'।
RS Election: 'আমি কংগ্রেসকে পছন্দ করি', কর্ণাটকে রাজ্যসভা নির্বাচনে 'ক্রস ভোটিং'
ছবি প্রতীকীগ্রাফিক্স নিজস্ব

উত্তেজনা, আতঙ্ক, সতর্কতা সবকিছুই ছিল রাজ্যসভা নির্বাচন ঘিরে। তারপরেও কর্ণাটকে রোখা গেলা না 'ক্রস ভোটিং'। এইচ ডি কুমারস্বামীর নেতৃত্বাধীন জনতা দল (সেকুলার) বা JD(S)-এর এক বিধায়ক দলীয় নির্দেশ অমান্য করে প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেসের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন।

সূত্রের খবর, শুক্রবার কর্ণাটকে ৪ আসনের রাজ্যসভা নির্বাচনে জেডি(এস)-এর বিধায়ক শ্রীনিবাস গৌড়া (Srinivas Gowda) কংগ্রেসকে ভোট দিয়েছেন।

ভোট দিয়ে বিধানসভা কমপ্লেক্স ছেড়ে বেরোনোর সময় সাংবাদিকরা তাঁকে জিজ্ঞেস করেন তিনি কাকে ভোট দিয়েছেন। এর উত্তরে তিনি জানান, তিনি কংগ্রেসকে ভোট দিয়েছেন। এর কারণ জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, "কারণ আমি কংগ্রেসকে পছন্দ করি।" উল্লেখ্য, এর আগেও একবার গুব্বির বিধায়ক শ্রীনিবাস গৌড়া জানিয়েছিলেন তিনি JD(S) ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দেবেন।

গৌড়ার এই কাজে প্রচন্ড ক্ষুব্ধ JD(S) প্রধান এইচ ডি কুমারস্বামী। সাংবাদিকদের সামনে তিনি বলেন, "এরকম নিম্নস্তরের রাজনীতি যাঁরা করে তাঁরা কি বিধায়ক?... ওনার (শ্রীনিবাস গৌড়া) যদি কোনো সম্মানবোধ থেকে থাকে তাহলে এই দল থেকে আগে পদত্যাগ করে তারপর অন্য রাজনীতি করা উচিত। উনি কোলারের JD(S) কর্মীদের অপমান করছেন।"

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কর্ণাটকে ৪ আসনের জন্য বিজেপি, কংগ্রেস এবং জেডি(এস)-এর পক্ষ থেকে মোট ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে বিজেপির ৩ জন, কংগ্রেসের ২জন এবং জেডি(এস)-এর ১ জন প্রার্থী রয়েছে।

বিধায়ক সংখ্যার নিরিখে বিজেপি ২ টি এবং কংগ্রেসের ১ টি আসনে জয় নিশ্চিত। এখন মূল লড়াই মূলত চতুর্থ আসনের জন্য। আর তা নিয়ে সম্মুখ সমরে নেমেছে তিন দলই।

২২৪ আসন বিশিষ্ট কর্ণাটকে একজন প্রার্থীর জয়ের জন্য ৪৫ জন বিধায়কের সমর্থন প্রয়োজন। সেখানে ১জন বিএসপি এবং ১ নির্দল সহ মোট ১২২ জন বিধায়কের সমর্থন পাচ্ছে বিজেপি। কংগ্রেসের নিজস্ব বিধায়ক সংখ্যা ৭০। আর জেডি(এস)-এর বিধায়ক সংখ্যা ৩২।

কংগ্রেসের দ্বিতীয় প্রার্থী মনসুর আলি খানের রাজ্যসভার আসনে জয়ের জন্য ২০টি ভোট কম পড়ছে। দলীয় সূত্রের খবর, বিধায়কদের ক্রস ভোটিংয়ের মাধ্যমে তাদের দ্বিতীয় প্রার্থীর জয়ের বিষয়ে আশাবাদী তারা।

অন্যদিকে দুই প্রার্থীর জয় নিশ্চিত করার পর বিজেপির ৩২টি উদ্বৃত্ত ভোট থাকবে। বিজেপির তৃতীয় প্রার্থী লেহের সিং সিরোয়া। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদিউরপ্পা বলেছেন যে তৃতীয় বিজেপি প্রার্থীকে রাজ্যসভায় নির্বাচিত করতে তিনি যথাসাধ্য চেষ্টা করবেন।

আর, জেডি(এস)-এর রাজ্যসভার প্রার্থী কুপেন্দ্র রেড্ডির জয় নিশ্চিত করার জন্য জাতীয় দলগুলির সমর্থন প্রয়োজন ছিল। কিন্তু, তার পরিবর্তে 'ক্রস ভোটিং' করে কংগ্রেসকে সমর্থন জানিয়েছে জেডি(এস)-এর এক বিধায়ক।

তবে এতকিছুর পরেও, চূড়ান্ত ফলাফল কী হয় সে দিকেই সকলের নজর রয়েছে, আজ সন্ধ্যায় যা প্রকাশিত হবে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in