গান্ধী জয়ন্তীর মধ্যে ভারতকে 'হিন্দুরাষ্ট্র' ঘোষণা না করলে স্বেচ্ছায় মৃত্যুবরণের হুমকি ধর্মগুরুর

আচার্য মহারাজ বলেন, '২ অক্টোবরের মধ্যে ভারতবর্ষকে হিন্দু রাষ্ট্র হিসাবে ঘোষণা করার দাবি জানাচ্ছি। তা না হলে আমি সরযূ নদীতে জলসমাধি গ্রহণ করব।'
গান্ধী জয়ন্তীর মধ্যে ভারতকে 'হিন্দুরাষ্ট্র' ঘোষণা না করলে স্বেচ্ছায় মৃত্যুবরণের হুমকি ধর্মগুরুর
পরমহংস আচার্য মহারাজছবি - সংগৃহীত

২ অক্টোবর গান্ধী জয়ন্তী। হাতে মাত্র তিনদিন। এই কদিনের মধ্যে যদি ভারতবর্ষকে হিন্দু রাষ্ট্র হিসাবে ঘোষণা করা না হয়, তাহলে জলসমাধির মাধ্যমে মৃত্যুবরণ করবেন। এমনই হুমকি দিলেন জগৎগুরু পরমহংস আচার্য মহারাজ। ডেডলাইন বেঁধে দিলেন ২ অক্টোবর। এমনটা জানা গেল সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের মাধ্যমে।

বুধবার অযোধ্যায় পরমহংস আচার্য মহারাজ বলেন, '২ অক্টোবরের মধ্যে ভারতবর্ষকে হিন্দু রাষ্ট্র হিসাবে ঘোষণা করার দাবি জানাচ্ছি। তা না হলে আমি সরযূ নদীতে জলসমাধি গ্রহণ করব।' তাঁর দাবি, কেন্দ্রের উচিত মুসলিম ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের নাগরিকত্ব বাতিল করে দেওয়া।

আগামী বছরের শুরুতেই উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। আর চব্বিশের লোকসভা নির্বাচনের আগে লিটমাস টেস্ট। সে কথা মাথায় রেখেই ঘর গোছাতে শুরু করেছে গেরুয়া শিবির। গত লোকসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে ক্ষমতায় এলেও বিধানসভাভিত্তিক নির্বাচনে দলের পারফরম্যান্স নিম্নমুখী। বঙ্গ নির্বাচনেও মুখ থুবড়ে পড়েছে গেরুয়া শিবির।

এই পরিস্থিতিতেই প্রকাশ্যে এসেছে জগৎগুরু পরমহংস আচার্য মহারাজর এই মন্তব্য। শোনা গিয়েছে, এর আগেও নাকি এই দাবিতে তিনি টানা পনেরো দিন অনশন করেছিলেন। অমিত শাহর আশ্বাসে অনশন ভাঙেন।

পুণেয় পুলিশ সংগঠনের এক অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ প্রধান মোহন ভাগবত দাবি করেন, দেশের প্রতিটি নাগরিকই হিন্দু। তাদের পূর্বপুরুষ এক। তিনি বলেন, 'হানাদারদের সঙ্গেই ইসলাম ধর্ম ভারতে এসেছিল। এটাই ইতিহাস।' দেশের হিন্দুরা কাউকেই শত্রু বলে মনে করেন না, জানিয়ে মোহন ভাগবত জানান, এদেশের মুসলমানদের আতঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ নেই। তিনি বলেন, 'আমরা এক নই, আলাদা বলে যারা দেশের বিভাজন করছে, তাদের ফাঁদে পা দেওয়া উচিত নয়।'

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in