ফের রেপো রেট বাড়ালো RBI, ২০১৯ থেকে সর্বোচ্চ - কী প্রভাব পড়বে আমজনতার উপর?

ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের জন্য এই নিয়ে শেষ তিন মাসে তিন বার রেপো রেট বাড়ালো RBI। এর ফলে ৪.৯ শতাংশ থেকে বেড়ে ৫.৪ শতাংশ হলো রেপো রেট। ২০১৯ সালের আগস্ট মাসে রেপো রেট ছিল ৫.১৫ শতাংশ।
রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস
রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর শক্তিকান্ত দাসফাইল ছবি

ফের রেপো রেট বাড়ালো ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক বা RBI। ৫০ বেসিস পয়েন্ট রেপো রেট বাড়ালো RBI মনিটারি পলিসি কমিটি। শুক্রবার একথা ঘোষণা করেন রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। এর ফলে ৪.৯ শতাংশ থেকে বেড়ে ৫.৪ শতাংশ হলো রেপো রেট, যা ২০১৯ সাল থেকে সর্বোচ্চ। ২০১৯ সালের আগস্ট মাসে রেপো রেট ছিল ৫.১৫ শতাংশ।

ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের জন্য এই নিয়ে শেষ তিন মাসে তিন বার রেপো রেট বাড়ালো রিজার্ভ ব্যাংক। সাংবাদিক সম্মেলনে শক্তিকান্ত দাস বলেন, "দেশের অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে রেপো রেট বাড়ানো জরুরি। পর পর তিন বার রেপো রেট বাড়ানোর আসল উদ্দেশ্য মূল্যবৃদ্ধি ও মুদ্রাস্ফীতিকে নিয়ন্ত্রণে আনা।" প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, জুন মাসে দেশে খুচরো মুদ্রাস্ফীতির হার ছিল ৭ শতাংশ।

রেপো রেট বাড়ানো নিয়ে গত ৩ আগস্ট থেকে বৈঠকে বসেন মনিটারি পলিসি কমিটি। শক্তিকান্ত দাসের নেতৃত্বে হওয়া এই বৈঠকে কমিটির ছয় সদস্যই মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রেপো রেট বৃদ্ধির পক্ষে ভোট দিয়েছেন। এরপরই সাংবাদিক সম্মেলন করে রেপো রেট বৃদ্ধির কথা জানান RBI গভর্নর। এবং স্ট্যান্ডিং ডিপোজিট ফেসিলিটি বা SDF ৫.১৫ শতাংশ করা হয়েছে।

রেপো রেট বৃদ্ধির ফলে বাড়ি, গাড়ি সহ সমস্ত ধরনের ঋণের সুদের হার বাড়বে বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা। অর্থাৎ মধ্যবিত্তের পকেটে আরও চাপ বাড়বে।

উল্লেখ্য, রিজার্ভ ব্যাংক দেশের ব্যাঙ্কগুলিকে যে হারে স্বল্পমেয়াদী ঋণ দেয় তাকেই রেপো রেট বলা হয়। এই রেপো রেট বৃদ্ধি পেলে ব্যাংকের খরচ বৃদ্ধি পাবে, যা ব্যাংকগুলো সাধারণ মানুষের পকেট থেকেই আদায় করবে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in