Rajasthan: পাইলট শিবিরের বিধায়কের ইস্তফায় ফের ঝড়ের ইঙ্গিত গেহলট সরকারে

মঙ্গলবার বিধানসভার স্পিকার সি পি যোশীর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন বারমেরের গুডামালানির বিধায়ক হেমারাম চৌধুরী, যিনি রাজ‍্যের প্রাক্তন উপমুখ‍্যমন্ত্রী শচীন পাইলটের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।
Rajasthan: পাইলট শিবিরের বিধায়কের ইস্তফায় ফের ঝড়ের ইঙ্গিত গেহলট সরকারে
অশোক গেহলট ও হেমারাম চৌধুরীফাইল ছবি সংগৃহীত

শচীন পাইলট ঘনিষ্ঠ কংগ্রেস বিধায়কের পদত্যাগের ঘটনায় নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়ালো রাজস্থানের রাজনীতিতে। মঙ্গলবার বিধানসভার স্পিকার সি পি যোশীর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন বারমেরের গুডামালানির বিধায়ক হেমারাম চৌধুরী, যিনি রাজ‍্যের প্রাক্তন উপমুখ‍্যমন্ত্রী শচীন পাইলটের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

বিধায়ক হিসেবে নিজের ষষ্ঠ মেয়াদে রাজ‍্য সরকারের বিরুদ্ধে প্রায়ই সরব হতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। মাত্র ২ মাস আগেই বিধানসভার অধিবেশনে গেহলট সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন হেমারাম চৌধুরী। ১৩ মার্চ বিধানসভায় বক্তব্য রাখার সময় নিজের এলাকার রাস্তার দুর্দশার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, "তাহলে ওদের (বিজেপি) আর আমাদের (কংগ্রেস) পার্থক্য কী রইলো?" রাস্তা তৈরিতে কয়েক কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগও তোলেন তিনি। নিজের এলাকায় কংগ্রেসের সাথেও তাঁর দূরত্ব ক্রমশ বাড়ছে বলেও শোনা যাচ্ছে। এই ওপর বিধায়কের পদত্যাগের ঘটনা কংগ্রেস পরিচালিত সরকারে নতুন করে ঝড় তুলতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ।

ই-মেইল মারফত পদত‍্যাগপত্র পাঠিয়েছেন হেমরাম চৌধুরী। পদত‍্যাগের কারণ এখনও জানা না গেলেও তিনি জানিয়েছেন, স্পিকার তাঁর পদত্যাগপত্র গ্রহণ করলেই এর কারণ জানাবেন তিনি। হাউসের মুখপাত্র লোকেশ চন্দ্র শর্মা জানিয়েছেন, "নিয়ম অনুযায়ী যা ব‍্যবস্থা নেওয়ার তা নেওয়া হবে।"

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি গোবিন্দ সিং দোতাস্রা গতকাল সন্ধ্যায় জানিয়েছেন দ্রুত এই ঘটনার সমাধান করা হবে। তিনি বলেন, হেমারামজী আমাদের দলের সিনিয়র এবং অত‍্যন্ত সম্মানীয় নেতা। আমি তাঁর পদত্যাগের কথা জানতে পেরে তাঁর সাথে কথা বলেছি। এটা আমাদের ঘরোয়া বিষয়, খুব শীঘ্রই এই সমস্যার সমাধান করা হবে।"

গত বছর মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের বিরুদ্ধে নিজের ১৯ জন অনুগামী বিধায়কদের নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন শচীন পাইলট। হেমারাম চৌধুরীও সেই দলে ছিলেন। নিজের অনুগামীদের নিয়ে দীর্ঘদিন একটি হোটেলে ছিলেন পাইলট। রাজ‍্যে সরকারের পতন বাঁচাতে একাধিক শর্ত দিয়ে শান্ত করা হয় বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের। যদিও গতকালের ঘটনার পর পুরোনো বিক্ষোভ আবার ফিরে আসছে পাইলট শিবিরে বলেই অনুমান রাজনৈতিক মহলের, কারণ সেই সময় যে শর্তে বিধায়কদের শান্ত করা হয়েছিল তা পূরণ করা হয়নি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in