কাপ্পানকে 'পশুর মতো চেন দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে' - স্ত্রীর অভিযোগের পর আদিত্যনাথকে চিঠি পিনারাইয়ের

মথুরার একটি হাসপাতালে কাপ্পানকে 'পশুর মতো চেন দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে' এই অভিযোগ তুলে গতকাল দেশের প্রধান বিচারপতিকে চিঠি লিখেছিলেন কাপ্পানের স্ত্রী।
কাপ্পানকে 'পশুর মতো চেন দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে' - স্ত্রীর অভিযোগের পর আদিত্যনাথকে চিঠি পিনারাইয়ের
যোগী আদিত‍্যনাথ, সিদ্দিকি কাপ্পান এবং পিনারাই বিজয়নফাইল ছবি

সাংবাদিক সিদ্দিকি কাপ্পানকে দ্রুত বিশেষ স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত‍্যনাথকে চিঠি লিখলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। মথুরার একটি হাসপাতালে কাপ্পানকে 'পশুর মতো চেন দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে' এই অভিযোগ তুলে গতকাল দেশের প্রধান বিচারপতিকে চিঠি লিখেছিলেন কাপ্পানের স্ত্রী। এরপরই বিষয়টিতে যোগী আদিত‍্যনাথের হস্তক্ষেপ চেয়ে তাঁকে চিঠি লেখেন বিজয়ন।

চিঠিতে পিনারাই বিজয়ন লেখেন, সিদ্দিকি কাপ্পানের গুরুতর হার্টের সমস‍্যা রয়েছে। এর ওপর চারদিন আগে তাঁর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এই অবস্থায় তাঁকে বিশেষ স্বাস্থ্য পরিষেবা না দিলে তাঁর জীবনের ঝুঁকি থাকছে।

তিনি আরও জানিয়েছেন, কেরালা ইউনিয়ন অফ ওয়ার্কিং জার্নালিস্ট এবং বেশ কিছু বিশিষ্ট মিডিয়া পার্সন এই বিষয়ে তাঁর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন যে, সাংবাদিক কাপ্পানকে হাসপাতালের বেডে চেন দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে। চিঠিতে যোগী আদিত‍্যনাথকে তিনি অনুরোধ জানিয়েছেন, কাপ্পানকে দ্রুত যেকোনো সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হোক, যেখানে আধুনিক চিকিৎসা ব‍্যবস্থার সুবিধা রয়েছে। মিডিয়াতেও এই চিঠি প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছর‌ ৫ অক্টোবর ১৯ বছরের এক দলিত নাবালিকার গণধর্ষণের খবর সংগ্রহের জন্য হাথরস যাওয়ার পথে কেরলের সাংবাদিক সিদ্দিকি কাপ্পানকে গ্রেফতার করে উত্তরপ্রদেশের পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে UAPA আইনের অধীনে মামলা দায়ের করা হয়। তখন থেকেই মথুরা জেলে বন্দি রয়েছেন তিনি। চারদিন আগে তাঁর কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসায় মথুরার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। তাঁর স্ত্রী রেইহানা কাপ্পানের অভিযোগ, হাসপাতালের বেডে চারদিন ধরে পশুর মতো বেঁধে রাখা হয়েছে কাপ্পানকে। খাবার খাওয়া তো দূরের কথা বাথরুমে যেতেও পারছেন না তিনি। বিষয়টিতে প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ চেয়ে তাঁকে চিঠিও দিয়েছেন তিনি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in