Petroleum Price Hike: আরও মহার্ঘ্য পেট্রোপণ্য - ৪ মে থেকে ৬ বার দাম বৃদ্ধি

পাঁচ রাজ‍্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর থেকে দফায় দফায় বেড়ে চলেছে পেট্রোপণ্যের দাম। গত ৪মে-র পর থেকে এই নিয়ে ষষ্ঠবার দাম বাড়লো পেট্রোল-ডিজেলের।
Petroleum Price Hike: আরও মহার্ঘ্য পেট্রোপণ্য - ৪ মে থেকে ৬ বার দাম বৃদ্ধি
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

পাঁচ রাজ‍্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর থেকে দফায় দফায় বেড়ে চলেছে পেট্রোপণ্যের দাম। গত ৪মে-র পর থেকে এই নিয়ে ষষ্ঠবার দাম বাড়লো পেট্রোল-ডিজেলের। দেশের মেট্রো শহরগুলোর পাশাপাশি অন্যান্য শহরেও দাম বেড়েছে পেট্রোপণ‍্যের। কলকাতায় পেট্রোলের দাম এই বছরের রেকর্ড গড়েছে।

বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত তেল বিপনন সংস্থাগুলোর বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, দিল্লিতে আজ পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে ২৭ পয়সা ও ডিজেলের দাম ৩০ পয়সা বেড়েছে। মূল‍্যবৃদ্ধির পর দিল্লিতে এক লিটার পেট্রোলের দাম হয়েছে ৯১.৮০ টাকা, আগে যা ছিল ৯১.৫৩ টাকা। ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে ৮২.০৬ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ৮২.৩৬ টাকা। শেষ এক সপ্তাহে দিল্লিতে এক লিটার পেট্রোলের দাম বেড়েছে ১.৪০ টাকা ও ডিজেলের দাম বেড়েছে ১.৬৩ টাকা।

দেশের মেট্রো শহরগুলোর মধ্যে জ্বালানি তেলের দাম সবথেকে বেশি মুম্বাইয়ে। পেট্রোলের দাম সেঞ্চুরির দিকে এগোচ্ছে সেখানে। আজ দেশের বাণিজ্য রাজধানীতে পেট্রোলের দাম লিটার প্রতি ২৬ পয়সা ও ডিজেলের দাম ৩১ পয়সা বেড়েছে। অর্থাৎ মুম্বাইতে এক লিটার পেট্রোলের দাম ৯৭.৮৬ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ৯৮.১২ টাকা। এক লিটার ডিজেলের দাম আজ ৮৯.৪৮ টাকা‌।

কলকাতায় আজ পেট্রোলের দাম লিটারপ্রতি ২৬ পয়সা বেড়ে হয়েছে ৯১.৯২ টাকা। এই বছরের সর্বোচ্চ দাম এটা। ডিজেলের দাম লিটার প্রতি ৩০ পয়সা বেড়ে হয়েছে ৮৫.২০ টাকা।

চেন্নাইয়ে লিটারপিছু পেট্রোল ও ডিজেলের নতুন দাম যথাক্রমে ৯৩.৬২ টাকা এবং ৮৭.২৫ টাকা। গতকাল এই দাম ছিল যথাক্রমে ৯৩.৩৮ টাকা এবং ৮৬.৯৬ টাকা।

প্রসঙ্গত, স্থানীয় কর ও পরিবহন খরচের ওপর নির্ভর করে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পেট্রোল-ডিজেলের দাম বিভিন্ন হয়। গত ১৫ এপ্রিল পশ্চিমবঙ্গ সহ পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন চলাকালীন পেট্রোল-ডিজেলের দাম কমিয়েছিল তেল বিপণন সংস্থাগুলো। এরপর ফল ঘোষণার আগে পর্যন্ত এই দামে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। ফল ঘোষণার পর ৪মে থেকে ফের জ্বালানি তেলের দাম বাড়তে শুরু করে। পেট্রোপণ‍্যের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধিতে নিত‍্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বাড়ার আশঙ্কা করছেন সাধারণ মানুষ।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in