TN Govt স্টারলাইটের বন্ধ কারখানা অধিগ্রহণ করে অক্সিজেন উৎপাদন করছে না কেন? প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের

তামিলনাড়ুর তুতিকোরিনে বন্ধ হয়ে থাকা বেদান্ত স্টারলাইট কপার ইউনিটকে অক্সিজেন উৎপাদনের জন্য কাজে লাগানো হচ্ছে না কেন? শুক্রবার এমনই প্রশ্ন তুলেছে সুপ্রিম কোর্ট
TN Govt স্টারলাইটের বন্ধ কারখানা অধিগ্রহণ করে অক্সিজেন উৎপাদন করছে না কেন? প্রশ্ন সুপ্রিম কোর্টের
ফাইল ছবি

সারা দেশে অক্সিজেনের হাহাকার। এই পরিস্থিতিতে তামিলনাড়ুর তুতিকোরিনে বন্ধ হয়ে থাকা বেদান্ত স্টারলাইট কারখানা অধিগ্রহণ করে অক্সিজেন উৎপাদনের জন্য কাজে লাগানো হচ্ছে না কেন? শুক্রবার এমনই প্রশ্ন তুলেছে সুপ্রিম কোর্ট।

প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে জানিয়েছেন, বেদান্তকে কে চালাবে তা নিয়ে আদালতের কোনও মাথাব্যথা নেই। দেশে অক্সিজেন উৎপাদন করানোই আদালতের লক্ষ্য। কাউকে কিছু অন্তত আশাবাদী কথা বলতে হবে, যাতে অসহায় মানুষ এভাবে বিনা অক্সিজেনে প্রাণ না হারায় বলে উল্লেখ করেন বিচারপতি এলএন রাও এবং এসআর ভাট। শীর্ষ আদালতের তরফে আরও জানানো হয়, তুতিকোরিনের স্টারলাইট কপার ইউনিট খুলে হাজার টন অক্সিজেন উৎপাদন করে দেশের কোভিড রোগীদের বিনামূল্যে সরবরাহ করা হোক।

রাজ্য সরকারের তরফে আইনজীবী সিএস বৈদ্যনাথন আদালতে জানান, সেখানকার আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখার পর জেলা শাসক স্থানীয় মানুষদের সঙ্গে এই বিষয়ে কথা বলবেন। এই বিষয়ে তিনি একটি হলফনামাও জমা করবেন বলে জানিয়েছেন। এর উত্তরে আদালতের তরফে জানানো হয়, এখন পরিস্থিতি অন্যরকম। সেই কথা হলফনামায় লেখা হয়েছে কি? আদালত আরও জানায়, এখন সারা দেশের অক্সিজেন দরকার। তামিলনাড়ু এই চাহিদা পূরণ করতে পারে।

কেন্দ্রের তরফে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা জানান, দেশের এখন অক্সিজেন দরকার, কিন্তু প্রত্যেক রাজ্যে অক্সিজেন উৎপাদন করা হচ্ছে না। যখন ১০০০ টন অক্সিজেন উৎপাদনে ক্ষমতা রয়েছে, তাহলে কেন তা উৎপাদন করা যাবে না? বেঞ্চের তরফে মেহতাকে জানানো হয়, আদালত যে বিষয়টি নিয়ে ভাবছে, তা নিয়ে ভাবার দরকার নেই। রাজ্যগুলোর একটি নির্দিষ্ট নীতি রয়েছে সংবিধানে। যা তামিলনাড়ু অবশ্যই পালন করবে বলে আদালতের বিশ্বাস।

প্রসঙ্গত, এর আগে অক্সিজেন সংক্রান্ত মামলার শুনানি চলাকালীন আইনজীবী হরিশ সালভে তুতিকোরিনের বন্ধ কারখানা খুলে অক্সিজেন উৎপাদনের কথা বলেছিলেন। যা নিয়ে নেট দুনিয়ায় কড়া সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। এরপরেই তিনি এই মামলা থেকে অব্যাহতি চান।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in