২৭ সেপ্টেম্বর 'ভারত বনধ', দিন বদলের ঘোষণা সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার

কৃষি আইন বাতিল ও ফসলের ন‍্যূনতম সহায়ক মূল‍্যের আইনি গ‍্যারেন্টির দাবিতে গত নভেম্বর মাস থেকে দিল্লি সীমান্তে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। নিজেদের দাবিকে আরো দৃঢ় করতে ভারত বনধের ডাক দিয়েছে মোর্চা।
২৭ সেপ্টেম্বর 'ভারত বনধ', দিন বদলের ঘোষণা সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার
মুজফফরনগর মহাপঞ্চায়েতেছবি সংগৃহীত

২৫ সেপ্টেম্বর নয়, নির্ধারিত কর্মসূচিতে কিছু রদবদল করে আগামী ২৭ তারিখ ভারত বনধের ডাক দিল সংযুক্ত কিষান মোর্চা বা এসকেএম। কেন্দ্রের তিন কৃষি আইনের প্রতিবাদে উত্তরপ্রদেশের মুজফফরনগরে আয়োজিত কিষাণ মহাপঞ্চায়েত থেকে এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে।

রবিবার অনুষ্ঠান মঞ্চে দাঁড়িয়ে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার মুখপাত্র যোগেন্দ্র যাদব বলেন, 'সরকারের লোকজন বলছে, কৃষকদের আন্দোলনের গতি কমে গিয়েছে। কিন্তু এত বড় জমায়েতের জন্য এই শহর যথেষ্ট নয়। এটা সেই মুজফ্ফরনগর যেখানে হিন্দু-মুসলিমের রক্তের নদী বয়েছিল। যে মানুষটা সম্প্রদায়ের মধ্যে লড়াই বাধিয়ে দিতে পারে, সে কখনওই দেশের আসল সন্তান হতে পারে না।' তিনি আরও বলেন, উত্তরপ্রদেশের কৃষকরা কোটি কোটি টাকায় দেনায় ডুবে রয়েছেন।

কৃষক নেতা রাকেশ টিকায়েত এদিন এসকেএমের লক্ষ্যমাত্রা পরিষ্কার করেন। মহাপঞ্চায়েতে তিনি বলেন, 'আমাদের আরও বড় সভা-মিছিল করতে হবে। শুধু উত্তরপ্রদেশ বা উত্তরাখণ্ডে সীমাবদ্ধ থাকলে হবে না। দেশজুড়ে ৬০০ কৃষকের মৃত্যু হয়েছে বিক্ষোভ চলাকালীন। সরকার কারও জন্য দুঃখপ্রকাশ করেনি।'

উল্লেখ্য, কৃষি আইন বাতিল ও ফসলের ন‍্যূনতম সহায়ক মূল‍্যের আইনি গ‍্যারেন্টির দাবিতে কৃষক সংগঠনগুলি একত্রিত হয়ে সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার ছাতার তলায় গত নভেম্বর মাস থেকে দিল্লি সীমান্তে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। নিজেদের দাবিকে আরো দৃঢ় করতে ও জনগণের মধ্যে বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য ভারত বনধের ডাক দিয়েছে মোর্চা। প্রথমে ২৫ সেপ্টেম্বর এই বনধের ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু মুজফ্ফরনগর মহাপঞ্চায়েত থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর বনধের ঘোষণা করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই পাঁচটি বাম দল কৃষকদের এই বনধকে সমর্থন জানিয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in