মধ্যপ্রদেশে কোভিডে মৃত এবং দাহ করা দেহের সংখ্যায় গরমিল, শিবরাজ সরকারের বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ

কোভিড বিধি মেনে দেহ দাহ হচ্ছে শ্মশানে। অথচ রাজ্য সরকারের পরিসংখ্যানের সঙ্গে বাস্তব মিলছে না। চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগ উঠেছে মধ্যপ্রদেশের শিবরাজ সিং চৌহান সরকারের বিরুদ্ধে।
মধ্যপ্রদেশে কোভিডে মৃত এবং দাহ করা দেহের সংখ্যায় গরমিল, শিবরাজ সরকারের বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ
ভূপালের ভাদভাদা শ্মশান ঘাটছবি শ্রীবাস্তবার ট্যুইটার ভিডিও থেকে স্ক্রীনশট

কোভিড বিধি মেনে দেহ দাহ হচ্ছে শ্মশানে। অথচ রাজ্য সরকারের পরিসংখ্যানের সঙ্গে বাস্তব মিলছে না। চাঞ্চল্যকর এই অভিযোগ উঠেছে মধ্যপ্রদেশের শিবরাজ সিং চৌহান সরকারের বিরুদ্ধে। বিজেপি শাসিত এই রাজ্যে সরকারি পরিসংখ্যানের সঙ্গে কোভিড বিধি মেনে শ্মশানে দাহ হওয়া দেহর সংখ্যায় আকাশ পাতাল ফারাক। অভিযোগ, কোভিডে মৃতের সংখ্যা গোপন করছে শিবরাজ সিং চৌহান সরকার।

গত মঙ্গলবার মধ্যপ্রদেশ সরকারের পক্ষ থেকে যে কোভিড পরিসংখ্যান প্রকাশিত হয়েছে সেই পরিসংখ্যান অনুসারে শেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৪০ জন। শুধু মঙ্গলবারই নয়। তথ্যে অসঙ্গতি দেখা গেছে গত কয়েকদিন ধরেই।

গত ৮ এপ্রিল সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে ২৭ জন কোভিড রোগীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়েছিলো। যদিও ওইদিন কোভিড বিধি মেনে সৎকার হয় ৪১টি দেহ। একইভাবে ৯ এপ্রিল ২৩ কোভিড রোগীর মৃত্যুর কথা জানানো হলেও কোভিড বিধি মেনে ৩৫টি দেহ সৎকার করা হয়েছে বলে অভিযোগ। ১১ এপ্রিল যেখানে কোভিড বিধি মেনে ৬৮টি দেহ দাহ করা হয়েছে সেখানে সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে মৃতের সংখ্যা ২৪।

ভূপালের ভাদভাদা শ্মশানে মৃতদেহের লাইন পড়ে গেছে বলে জানা যাচ্ছে। যেদিন শুধু ভূপালের এই শ্মশানেই দাহ হয়েছে ৩৭ টি কোভিড রোগীর মৃতদেহ। যদিও সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে ওইদিন গোটা রাজ্যে মৃত্যু হয় ৩৭ জনের।

বুধবার সকালে কেন্দ্রীয় সরকারের পরিসংখ্যান অনুসারে মধ্যপ্রদেশে শেষ ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮,৯৯৮ জন। রাজ্যে শেষ ২৪ ঘণ্টায় অ্যাক্টিভ কেস বেড়েছে ৪,৮৮৮। শেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪০ জনের।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in