উমর খালিদকে নিয়ে 'মিডিয়া ট্রায়ালে' ক্ষুব্ধ NBDSA, চ্যানেলগুলিকে ভিডিও সরানোর নির্দেশ

জি নিউজ (Zee News), জি হিন্দুস্তান (Zee Hindustan), ইন্ডিয়া টিভি (India TV) এবং আজতক (Aaj Tak) চ্যানেল উমর খালিদকে নিয়ে যে ‘চাঞ্চল্যকর ট্যাগলাইন এবং টিকার’ প্রকাশ করেছে তাতে আপত্তি জানিয়েছে NBDSA
উমর খালিদকে নিয়ে 'মিডিয়া ট্রায়ালে' ক্ষুব্ধ NBDSA, চ্যানেলগুলিকে ভিডিও সরানোর নির্দেশ
উমর খালিদফাইল ছবি সংগৃহীত

দিল্লি দাঙ্গায় অভিযুক্ত উমর খালিদকে নিয়ে 'মিডিয়া ট্রায়াল'-এর নিন্দা জানিয়েছে ভারতের নিউজ ব্রডকাস্টিং অ্যান্ড ডিজিটাল স্ট্যান্ডার্ড অথরিটি (NBDSA) । ২০২০ সালে সংবাদমাধ্যম জি নিউজ (Zee News), জি হিন্দুস্তান (Zee Hindustan), ইন্ডিয়া টিভি (India TV), এবং আজতক (Aaj Tak) চ্যানেল উমর খালিদকে নিয়ে যে সমস্ত ‘সংবেদনশীল ট্যাগলাইন এবং টিকার’ প্রকাশ করেছিল, তা নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে ভারতীয় টিভি চ্যানেলগুলির নিয়ামক সংস্থা NBDSA। একইসঙ্গে, চ্যানেলগুলিতে সম্প্রচারিত সকল ভিডিও এবং লিঙ্কগুলি সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

NBDSA হল একটি একটি স্বাধীন সংস্থা। বেসরকারী টিভি চ্যানেলে সম্প্রচারিত কোনও বিষয় নিয়ে অভিযোগ এলে, তা পর্যালোচনা এবং বিচার করার দায়িত্ব নিউজ ব্রডকাস্টিং অ্যান্ড ডিজিটাল স্ট্যান্ডার্ড অথরিটির (NBDSA)। এই সংস্থার নেতৃত্বে রয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ.কে. সিক্রি (Justice A.K. Sikri)।

২০২০ সালের নভেম্বরে এই চ্যানেলগুলির বিরুদ্ধে NBDSA-এর নীতিমালা লঙ্ঘনের অভিযোগে জমা পড়েছিল। দীর্ঘদিন ধরে সেই অভিযোগ যাচাইয়ের পর গত ১৩ জুন, চ্যানেলগুলিকে উমর খালিদকে নিয়ে সম্প্রচারিত সকল ভিডিও এবং লিঙ্কগুলি সরিয়ে ফেলার নিদেশিকা জারি করেছে NBDSA

২০২০ সালে ভারতের নাগরিকত্ব আইনের সংশোধনকে (CAA) কেন্দ্র করে দেশজুড়ে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। ওই বছরের ফেরুয়ারি মাসে দিল্লিতে দাঙ্গা হয়। এই ঘটনায় নাম জড়ায় জেএনইউ-এর প্রাক্তন ছাত্র নেতা উমর খালিদের। এ সময় টিভি চ্যানেলগুলিতে খালিদকে নিয়ে যে খবর বা অনুষ্ঠান সম্প্রচার হয়েছিল তাতে আপত্তিকর বিষয় ছিল বলে NBDSA-তে অভিযোগ জানিয়েছিলেন সমাজকর্মী ইন্দ্রজিৎ ঘোরপাড়ে (Indrajeet Ghorpade)। সেই অভিযোগের পরিপেক্ষিতেই তদন্ত শুরু করে NBDSA-র আধিকারিকরা।

অভিযোগ, খালিদ সম্পর্কে ‘টুকরে টুকরে গ্যাং’ (tukde-tukde gang) শব্দ ব্যবহার হয়েছিল টিভি চ্যানেলে। এমনকি, দিল্লি পুলিশের চার্জশিট ব্যবহার করে উমর খালিদকে ‘সন্ত্রাসবাদী’ আখ্যা দেয় চ্যানেলগুলি। যা পুলিশি তদন্তের মাঝে বিষয়টিকে ‘গুরুতর’ করে তুলেছে। এই অভিযোগ তুলে NBDSA-র দ্বারস্থ হয়েছিলেন সমাজকর্মী ইন্দ্রজিৎ ঘোরপাড়ে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ২ জুন, দিল্লি হাইকোর্ট এক পর্যবেক্ষণে জানিয়েছিল, অন্ধ্রপ্রদেশের অমরাবতীতে দেওয়া জেএনইউ-এর প্রাক্তন ছাত্রনেতা উমর খালিদের বক্তৃতা রুচিহীন হলেও তা জঙ্গি কার্যকলাপ নয়।

উমর খালিদ
উমর খালিদের বক্তৃতা সন্ত্রাসী কার্যকলাপের মধ্যে পড়ে না: দিল্লি হাইকোর্ট

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in