Lakhimpur Kheri: কৃষকদের পিষে দেবার সময় মন্ত্রীর ছেলে গাড়িতেই ছিলেন, দাবি পিছনের গাড়ির যাত্রীর

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই খুনের মামলা দায়ের হয়েছে। তবে ৭২ ঘন্টার বেশি সময় কেটে গেলেও এখনও এই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করেনি উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।
Lakhimpur Kheri: কৃষকদের পিষে দেবার সময় মন্ত্রীর ছেলে গাড়িতেই ছিলেন, দাবি পিছনের গাড়ির যাত্রীর
লখিমপুর খেরির ঘটনাভাইরাল হওয়া ভিডিও থেকে স্ক্রিনশট

লখিমপুর খেরির ঘটনার আরো একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে বিক্ষোভরত কৃষকদের ওপর দিয়ে গাড়ি চালানোর পর রাস্তার ওপরেই এক ব‍্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন এক পুলিশ অফিসার। রবিবারের এই মর্মান্তিক ঘটনায় চার কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। পরে অশান্তির জেরে এক সাংবাদিক সহ আরো পাঁচ জনের মৃত্যু হয়।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে সাদা গেঞ্জি পরে মাটিতে বসে আছেন এক ব‍্যক্তি। তাঁর গাল‌ বেয়ে রক্ত ঝরছে। এক পুলিশ অফিসার মাইক হাতে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। লোকটির দাবি অনুযায়ী, যে ধূসর Thar গাড়িটি কৃষকদের পিষে দিয়ে চলে যায় তার পিছনে একটি কালো ফরচুনারে ছিলেন তিনি।

পুলিশ অফিসার ওই ব‍্যক্তিকে জিজ্ঞেস করছেন, "আগে আর একটি গাড়ি ছিল, সেটি কার?"

ব‍্যক্তিটি বলেন, "আমি জানি না।"

পুলিশ বলেন, "গাড়িতে কে ছিলেন শুধু এটুকু বলুন আমাদের।"

ব‍্যক্তি বলেন, "ভাইয়াজি ছিলেন।" (এখানে ভাইয়াজি বলতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলে আশিষ মিশ্রকে বোঝানো হয়েছে।)

পুলিশের প্রশ্ন, "মানে সবাই তাঁর লোকই ছিল?"

ব‍্যক্তি স্বীকার করে বলেন, "হ‍্যাঁ, সবাই তাঁর লোক ছিল।"

সংবাদমাধ্যমের প্রকাশিত এই ভিডিওর সত‍্যতা যাচাই করেনি পিপলস্ রিপোর্টার।

সোমবার আর একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল, যেখানে একটি Thar-কে দ্রুতগতিতে এসে কৃষকদের ওপর দিয়ে চলে যেতে দেখা গেছে। তার ঠিক পিছনেই একটি কালো ফরচুনার ছিল। যদিও কে Thar-টি চালাচ্ছিলেন বা তাতে কে কে রয়েছেন তা ‌বোঝা যায়নি।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই খুনের মামলা দায়ের হয়েছে। তবে ৭২ ঘন্টার বেশি সময় কেটে গেলেও এখনও এই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করেনি উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.