পশুখাদ্য দুর্নীতির চতুর্থ মামলাতেও জামিন, জেল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন লালুপ্রসাদ যাদব

পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির চতুর্থ মামলাতেও জামিন পেলেন বর্ষীয়ান লালুপ্রসাদ যাদব। চতুর্থ মামলাতেও শনিবার দুমকা আদালতে জামিন পাওয়ায় এবার তিনি কারাবাস থেকে মুক্তি পাবেন।
পশুখাদ্য দুর্নীতির চতুর্থ মামলাতেও জামিন, জেল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন লালুপ্রসাদ যাদব
লালুপ্রসাদ যাদবফাইল ছবি সংগৃহীত

পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির চতুর্থ মামলাতেও জামিন পেলেন বর্ষীয়ান লালুপ্রসাদ যাদব। এর আগেই এই সংক্রান্ত তিনটি মামলাতেই তিনি জামিন পেয়েছিলেন। চতুর্থ মামলাতেও শনিবার দুমকা আদালতে জামিন পাওয়ায় এবার তিনি কারাবাস থেকে সাময়িক মুক্তি পাবেন।

এই মুহূর্তে শারীরিক অসুস্থতার কারণে লালুপ্রসাদ যাদব দিল্লির এইমস-এ ভর্তি আছেন। গত অক্টোবর মাসে লালুপ্রসাদ চাইবাসা ট্রেজারি মামলায় জামিন পেয়েছিলেন।

গত ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে চারটি পশুখাদ্য মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে জেলে আছেন লালুপ্রসাদ যাদব। যদিও এই সময়ের বেশিরভাগটাই শারীরিক অসুস্থতার কারণে তাঁকে কাটাতে হয়েছে ঝাড়খন্ডের রাজেন্দ্র ইন্সটিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স-এ। গত জানুয়ারিতে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে দিল্লির এইমস এ ভর্তি করা হয়।

দুমকা ট্রেজারি মামলায় লালুপ্রসাদের বিরুদ্ধে সাড়ে ৩ কোটি টাকা তছরূপের অভিযোগ আনা হয়েছিলো। ১৯৯১ থেকে ১৯৯৬ সময়কালে লালুপ্রসাদ যাদব মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন এই দুর্নীতি হয় বলে অভিযোগ। এই অভিযোগ প্রমাণিত হবার পর আদালত তাঁকে ৭ বছর কারাদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়। যে কারাবাসের মেয়াদের অর্ধেক ইতিমধ্যেই অতিক্রান্ত বলে দাবি করেছেন লালুপ্রসাদের আইনজীবী কপিল সিব্বাল।

দলের সুপ্রিমোর কারাবাসের জন্য আরজেডি-র পক্ষ থেকে বরাবরই অভিযোগ জানানো হয়েছে বিজেপি এবং জেডিইউ-র বিরুদ্ধে। তাদের বক্তব্য অনুসারে, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণেই লালুপ্রসাদের কারাবাস।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in