Kerala Poll 21: এবার কেরলে বিজেপির একমাত্র খাতাও বন্ধ করে দেওয়া হবে - পিনারাই বিজয়ন

গত বিধানসভা নির্বাচনে কেবলমাত্র নিমোম কেন্দ্রে জিতে কেরলে খাতা খুলেছিল বিজেপি। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রে বিজেপিকে হারিয়ে তাদের আবার শূন্য করে দেওয়ার ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন
Kerala Poll 21: এবার কেরলে বিজেপির একমাত্র খাতাও বন্ধ করে দেওয়া হবে - পিনারাই বিজয়ন
কোচিতে নির্বাচনী প্রচারে পিনারাই বিজয়নফাইল ছবি, পিনারাই বিজয়নের ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

গত বিধানসভা নির্বাচনে কেবলমাত্র নিমোম কেন্দ্রে জিতে কেরলে খাতা খুলেছিল বিজেপি। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে এই কেন্দ্রে বিজেপিকে হারিয়ে তাদের আবার শূন্য করে দেওয়ার ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। বিজেপির ভোট শেয়ারও আগের থেকে কমবে বলে দাবি করেছেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, রাজ‍্যে কীভাবে আরো উন্নয়ন হবে তা নিয়ে একবিন্দুও শব্দ খরচ করতে রাজি নয় বিরোধীরা। কেবল কিছু মিডিয়ার সাহায্যে মিথ্যা প্রোপাগান্ডা ছড়াতে ব‍্যস্ত এরা।

কাসরগড়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিদায়ী এলডিএফ সরকারের মুখ্যমন্ত্রী বিজয়ন বলেন, "পাঁচ বছর আগে নিমোম কেন্দ্র থেকে জিতে বিজেপি প্রথমবারের জন্য তাদের খাতা খুলেছিল কেরলে। এই বছর আমরা ওই খাতা বন্ধ করে দেব। শিশু থেকে বয়স্ক প্রত‍্যেকের সমর্থন আদায় করেছে এলডিএফ। যখন প্রাকৃতিক বিপর্যয় এবং কোভিড মহামারী রাজ‍্যে থাবা বসিয়েছিল, গোটা বিশ্বের কাছে কেরল নিজেকে মডেল হিসেবে তুলে ধরেছে। বিরোধীরা রাষ্ট্রের বিকাশের বিষয়ে কথা বলতে ভয় পান। মিডিয়াও এটি নিয়ে আলোচনা করতে রাজি নয়। কেউ কি পাঁচ বছর আগের কেরলের সাথে আজকের কেরলের তুলনা করতে পারবে? এই কারণেই উন্নয়নকে আটকাতে সবরকম ভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিরোধীরা।"

বিজেপি এবং আরএসএস-কে আক্রমণ করে তিনি বলেন, "বিজেপি সরকার এবং আরএসএস-এর মূল এজেন্ডা হলো মানুষে মানুষে বিভেদ তৈরি করা। এর পাশাপাশি সংবিধানকে ধ্বংস করার কাজও করছে তারা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা বারবার দাবি করছেন শীঘ্রই সিএএ লাগু করবে তাঁরা। তবে কেরলের বর্তমান সরকার পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে কেরলে এই আইন লাগু করা হবে না।"

কংগ্রেসের নাম না নিয়ে তাঁর কটাক্ষ, "এখানে এমন একটি বিরোধী দল রয়েছে যারা আরএসএস-এর নাম শুনলেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।" তাঁর অভিযোগ, "সাম্প্রদায়িকতা হ্রাস এবং সাংবিধানিক অধিকার রক্ষার দায়িত্ব থেকে সরে এসেছে কংগ্রেসও। বরং কোনওভাবে এলডিএফ-কে যদি পরাস্ত করা যায় তার জন্য বিজেপির সাথে জুটি বেঁধেছে তারা।" তাঁর প্রশ্ন, "আরএসএস যদি সাম্প্রদায়িকতার হোলসেলার হয়, তবে ইউডিএফ কি খুচরো বিক্রেতা নয়?"

তাঁর কথায়, "গত পাঁচ বছর শাসক-বিরোধী কে কিভাবে কাজ করেছে এই নির্বাচনে তার মূল‍্যায়ন হবে। আমরা যে উত্তরের যোগ‍্য জনগণ সেই উত্তরই দেবে আমাদের। আমরা কখনই বিনামূল্যে চাল দেওয়াকে ভোট পাওয়ার উপায়ে পরিণত করিনি। এটা জনসাধারণের অধিকার।"

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in