Kerala: বিধানসভা ভোটে পদ্ম ফোটাতে ব্যর্থ ‘মেট্রোম্যান’ শ্রীধরণ সক্রিয় রাজনীতি ছাড়লেন

তাঁর কথায় – “আমি কখনই একজন রাজনীতিবিদ ছিলাম না। আমি একজন আমলা। আমি আর সক্রিয় রাজনীতিতে যাচ্ছি না। তবুও আমি অন্য উপায়ে জনগণের সেবা করতে পারি।
Kerala: বিধানসভা ভোটে পদ্ম ফোটাতে ব্যর্থ ‘মেট্রোম্যান’ শ্রীধরণ সক্রিয় রাজনীতি ছাড়লেন
ই. শ্রীধরণ ... ফাইল ছবি- সংগৃহীত

আচমকাই সবাইকে অবাক করে দিয়ে সক্রিয় রাজনীতি ছাড়লেন ই. শ্রীধরণ। সারা দেশ যাকে মেট্রোম্যান হিসাবেই চেনে। ‘মেট্রোম্যান’ ই. শ্রীধরন বৃহস্পতিবার ঘোষণা করেন যে তিনি সক্রিয় রাজনীতি থেকে সরে যাচ্ছেন। কেরলের মালাপ্পুরম শহরে মিডিয়ার সাথে কথা বলার সময় তিনি বলেন, “অনেকেই জানেন না, আমার বয়স এখন ৯০ বছর। আমি সক্রিয় রাজনীতি ছেড়ে দিচ্ছি। এর মানে এই নয় যে আমি রাজনীতি ছেড়ে দিচ্ছি। আমি যখন নির্বাচনে হেরেছিলাম, দুঃখ পেয়েছিলাম। কিন্তু এখন আমি দুঃখিত নই। কারণ একজন বিধায়ক দিয়ে কিছুই করা যায় না।”

তিনি আরও বলেন - বিজেপির রাজ্য ইউনিটের ভোট শেয়ার ছিল ১৬ থেকে ১৭ শতাংশ। কিন্তু এখন তা অনেক কমে এসেছে। তাঁর কথায় – “আমি কখনই একজন রাজনীতিবিদ ছিলাম না। আমি একজন আমলা। আমি আর সক্রিয় রাজনীতিতে যাচ্ছি না। তবুও আমি অন্য উপায়ে জনগণের সেবা করতে পারি। আমার তিনটি ট্রাস্ট আছে এবং আমার আরও অনেক কাজ আছে, যেগুলো আমাকে করতেই হবে।”

প্রসঙ্গত, ফেব্রুয়ারিতে কেরালায় বিধানসভা নির্বাচনের আগে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন। শ্রীধরণকে কেরালা বিজেপি ইউনিটের একটি অংশ দলের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে দাবি করেছিল। যদিও অফিসিয়ালি কেরল বিজেপির তরফ থেকে তা কখনও স্বীকার করা হয়নি। তিনি পালাক্কাদ বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। কিন্তু ৩৮৫৯ ভোটের ব্যবধানে তরুণ কংগ্রেস বিধায়ক শফি পারম্বিলের কাছে পরাজিত হন।

উল্লেখ্য, এবারের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির একমাত্র বিধায়কও পরাজিত হয়েছে। আপাতত কেরল বিধানসভাতে বিজেপি ‘শূন্য’।

ই. শ্রীধরণ ...
Kerala: দলীয় কর্মীকে কুপিয়ে খুন, আরএসএস-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ সিপিআই(এম)-এর, গ্রেপ্তার ৪

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in