Karnataka: প্রশ্ন করায় হুমকি! মেজাজ হারিয়ে মহিলাকে পুলিশের হাতে তুলে দিলেন বিজেপি বিধায়ক

ভিডিওতে দেখা যায়, লিম্বাভালি মহিলাটিকে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিচ্ছেন। এমনকি তিনি পুলিশকে নির্দেশ দেন মহিলাটিকে লাথি মারতে এবং জেলে ঢোকাতে।
মহিলার হাত থেকে নথি কেড়ে নিচ্ছেন বিজেপি বিধায়ক
মহিলার হাত থেকে নথি কেড়ে নিচ্ছেন বিজেপি বিধায়কছবি সৌজন্যে ভিডিওর স্ক্রীনশট

মহিলার সাথে অশালীন আচরণ করার অভিযোগ উঠলো কর্ণাটকের বিজেপি বিধায়ক অরবিন্দ লিম্বাভালির বিরুদ্ধে। বিধায়ককে কিছু প্রশ্ন করেছিলেন ওই মহিলা। আর তাতেই মেজাজ হারিয়ে বচসায় জড়ালেন লিম্বাভালি। এমনকি মহিলার সাথে খারাপ আচরণ করে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে তাঁকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে লিম্বাভালির বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি, ব্যাঙ্গালোরের জল সরবরাহ এবং পয়ঃনিষ্কাশন বোর্ডের তরফে একটি বাণিজ্যিক ভবনের কম্পাউন্ড প্রাচীর বুলডোজ করা হয়েছিল। বোর্ডের তরফে বলা হয়েছিল, প্রাচীরটি একটি স্প্রুটের উপর তৈরী করা হয়েছে। যার ফলে বৃষ্টির জল নিষ্কাশনের সমস্যা হচ্ছে।

কিন্তু সেই বাণিজ্যিক ভবনের মালিক রুথ সাগাই মেরি আমেলা এর তীব্র বিরোধিতা করে বলেন, তিনি সরকারি সার্ভেয়ারের কাছ থেকে জরিপ করে এবং বিভাগীয় অনুমোদন নিয়ে প্রাচীরটি নির্মাণ করেছেন। যদিও কম্পাউন্ড প্রাচীরের অর্ধেক ভেঙে ফেলা হয়েছে। রাজ খাল সংলগ্ন বাণিজ্যিক ভবনের একটি অংশও বুলডোজার দিয়ে ভেঙে ফেলা হয়েছে।

গত সোমবার ভারী বৃষ্টি হওয়ার কারণে মহাদেবপুর বিধানসভার অনেক এলাকা প্লাবিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার নালুরাহল্লির হোয়াইটফিল্ড কোডি সার্কেলের কাছে এলাকা পরিদর্শন করতে গিয়েছিলেন বিজেপি বিধায়ক। সেই সময় ওই মহিলা বিধায়কের কাছে এসে কিছু কাগজপত্র দেখান এবং দাবি করেন যে ওই নির্মানটি বৈধ। পাশাপাশি ওই মহিলা লিম্বাভালিকে বেশ কিছু প্রশ্ন করতে শুরু করেন। যার জেরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।

ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, বিজেপি নেতা ওই মহিলার হাত থেকে নথিগুলি কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলেন। মহিলাটি যখন কিছু বলার চেষ্টা করছিলেন তখন লিম্বাভালি তাঁকে উঁচু স্বরে কিছু বলছেন। এরপর বলপূর্বক মহিলাকে পুলিশের হাতে তুলে দেন বিধায়ক।

ভিডিওতে দেখা যায়, লিম্বাভালি মহিলাটিকে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দিচ্ছেন। এমনকি তিনি পুলিশকে নির্দেশ দেন মহিলাটিকে লাথি মারতে এবং জেলে ঢোকাতে। যদিও এই ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করেনি পিপলস রিপোর্টার।

ভিডিওটিতে মিস আমিলাকে বলতে শোনা যায়, "স্যার, এটা সরকারি জমি নয়। আপনি আমাদের বিধায়ক। আমি আপনাকে অনুরোধ করছি। অথচ বিধায়ক হয়ে আপনি একজন মহিলার সাথে কীভাবে কথা বলছেন?" এরপরই ক্ষোভের সাথে অশ্লীল ভাষা প্রয়োগের মাধ্যমে লিম্বাভালি আমিলাকে বলেন, "জমি দখল করার পরও আপনি সম্মান চাইছেন?"

এই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসার পরই বিধায়কের ভূমিকা ঘিরে বিতর্ক শুরু হয়েছে নানা মহলে। ক্ষমতা দেখাতেই তিনি ওই মহিলার সঙ্গে এমন আচরণ করেছেন বলে সরব হয়েছেন অনেকে।

কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা ভিডিওটি শেয়ার করে বিজেপিকে তীব্র ভর্ৎসনা করেছেন। তিনি জানান, নারী নিরাপত্তার নামে ভণ্ডামি করছে বিজেপি। কণ্ণড় ভাষায় লেখা এক ট্যুইটে তিনি জানান, "জনপ্রতিনিধি হিসেবে লিম্বাভালি একজন মহিলার সাথে যে আচরণ করেছেন তা ক্ষমার অযোগ্য।" তবে কংগ্রেস নেতার মন্তব্যের পাল্টা হিসেবে লিম্বাভালি ওই মহিলাকে কংগ্রেসের কর্মী বলে অভিযোগ করেছেন।

মহিলার হাত থেকে নথি কেড়ে নিচ্ছেন বিজেপি বিধায়ক
Teesta Setalvad: সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তিস্তা শীতলাবাদের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in