Karnataka: আয়কর অভিযান ঘিরে রাজনৈতিক টানাপোড়েন, ইয়েদুরিয়াপ্পাকে কোণঠাসা করতে উদ্যোগ!

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী বলেছেন ইয়েদিয়ুরাপ্পা এবং তাঁর ছেলে বি ওয়াই বিজয়েন্দ্রকে চাপে রাখতেই এই আয়কর অভিযান। ইয়েদিয়ুরাপ্পা আর বিজয়েন্দ্র কিছু করার আগেই দল তাদের লাগাম পরাতে চায়।
Karnataka: আয়কর অভিযান ঘিরে রাজনৈতিক টানাপোড়েন, ইয়েদুরিয়াপ্পাকে কোণঠাসা করতে উদ্যোগ!
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পাছবি বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পার ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

বেঙ্গালুরুতে কয়েকজন ঠিকাদার ও চার্টার্ড অ্যাকাউন্টান্টের বিরুদ্ধে আয়কর অভিযান রাজনৈতিক মোড় নিয়েছে। মনে করা হচ্ছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদিয়ুরাপ্পাকে নিশানা করেই তাঁর নিকট বৃত্তে থাকা লোকজনের বিরুদ্ধেই এই আয়কর অভিযান হচ্ছে।

আরেক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী বলেছেন ইয়েদিয়ুরাপ্পা এবং তাঁর ছেলে বি ওয়াই বিজয়েন্দ্রকে চাপে রাখতেই এই আয়কর অভিযান। ইয়েদিয়ুরাপ্পা আর বিজয়েন্দ্র কিছু করার আগেই দল তাদের লাগাম পরাতে চায়।

দলের এক সূত্র অনুসারে, মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পরে হাইকম্যান্ড তাঁর সঙ্গে যে রকম ঠান্ডা ব্যবহার করছে তাতে ইয়েদিয়ুরাপ্পা খুশি নন।.

বিজেপির ভাইস প্রেসিডেন্ট তাঁর ছেলে বি ওয়াই বিজয়েন্দ্রকে ক্যাবিনেট মন্ত্রী না করায় ইয়েদিয়ুরাপ্পা এমনিতেই ক্ষুব্ধ। তার ওপর কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দিতে উপনির্বাচনে ভারপ্রাপ্তদের তালিকায় প্রাথমিকভাবে বিজয়েন্দ্রের নাম ঘোষণা করেনি বিজেপি। সমর্থকদের তীব্র প্রতিবাদের পরে তাঁর নাম ঢোকানো হয়। এর আগে ইয়েদিয়ুরাপ্পার রাজ্য সফরের পরিকল্পনা বাতিল করে দিয়েছিল দল।

ইয়েদিয়ুরাপ্পা তাঁর সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও রাজ্যজুড়ে এখনও জনপ্রিয়। কর্নাটকের আর কোন বিজেপি নেতার তাঁর মতো জনমোহিনী শক্তি নেই। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্মাই শুরুটা ভাল করলেও ইয়েদিয়ুরাপ্পার ঔজ্জ্বল্য পেতে হলে তাঁকে এখনও অনেকটা পথ হাঁটতে হবে। তবে ইয়েদিয়ুরাপ্পার বিরুদ্ধে অঢেল দুর্নীতি, স্বজনপোষণের অভিযোগ থাকায় দল দূরত্ব বাড়াতে চায়।

সুষ্ঠুভাবে প্রস্থান নিশ্চিত হওয়ার পরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে ইয়েদিয়ুরাপ্পার মন্তব্যে হতচকিত হয়ে যায় দল। তিনি বলেছিলেন, শুধু মোদী হাওয়ায় ভর করে রাজ্যে বিজেপি ভোটে জিততে পারবে না। দল এও জানে প্রথম বারের মেয়াদে মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে সরে দাঁড়াতে বলায় কিভাবে তিনি দলের বর্ষীয়ান নেতার বিরোধিতা করেছিলেন।

দল সম্প্রতি প্রবীণ এই নেতাকে তুষ্ট করতে তাঁর অনুগামীদের মুখ্যমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব হিসাবে নিযুক্ত করেছে। ইয়েদিয়ুরাপ্পা অবশ্য ঘটনাপ্রবাহে খুশি নন। তিনি মনে করছেন তাঁকে অবহেলা করা হচ্ছে। যদি ইয়েদিয়ুরাপ্পা নির্বাচনে গা না ঘামান তাহলে বিজেপির পক্ষে তা মুশকিলের কারণ হতে পারে। কারণ বিরোধী নেতা সিদ্দারামাইয়া এবং এইচ ডি দেবেগৌড়া পরিবার এবং কংগ্রেসের প্রদেশ সভাপতি ডি কে শিবকুমারের মতো নেতার সঙ্গে টক্কর নেওয়ার আর কেউ নেই বিজেপিতে।

শিবমোগগা জেলায় তাঁর গ্রাম শিকারিপুরায় আয়কর অভিযান কি তাঁকে লক্ষ্য করে? এই প্রশ্নের জবাবে ইয়েদিয়ুরাপ্পা বলেছেন, 'আয়কর অফিসারেরা তাঁদের কর্তব্য করেছেন। দোষীদের তাঁরা রেয়াত করবেন না। এর মধ্যে রাজনীতি নেই। এই অভিযানে উপনির্বাচনে কোন প্রভাব পড়বে না।' আরও তথ্য পাওয়ার পরে শুক্রবার প্রতিক্রিয়া দেবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী বোম্মাই বলেছেন, আয়কর অভিযানের সঙ্গে সরকারের যোগ নেই। সংবাদ মাধ্যম থেকে জেনেছেন। তিনিও বিস্তারিত জানার পরে প্রতিক্রিয়া দেবেন বলেছেন।

বৃহস্পতিবার খুব সকাল থেকেই আয়কর দফতরের প্রায় ৩০০আধিকারিক কর্নাটকের ৫০টি জায়গায় অভিযান চালায়। ইয়েদিয়ুরাপ্পার আমলে জল সম্পদ মন্ত্রকে ২০০০০কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকল্প রূপায়ণে বিশাল পরিমাণ ঘুষের লেনদেনের নির্দিষ্ট খবরের ভিত্তিতেই এই অভিযান চালানো হয় বলে খবর।

আধিকারিকরা বিএমটিসির কন্ডাক্টর তথা ড্রাইভার তথা কন্ট্রাক্টর এম আর উমেশের বাড়িতে অভিযান চালায়। অভিযোগ ইয়েদিয়ুরাপ্পার নিকট বৃত্তে প্রবেশ করার পরেই তাঁর ভাগ্য ফেরে। তিনি ইয়েদিয়ুরাপ্পার ব্যক্তিগত সচিব হিসাবে কাজ করতেন। বোম্মাই সরকারের আমলেও তিনি ছিলেন। কিন্তু এইসব তথ্য সামনে আসার পরে তাঁর নিযুক্তি ফিরিয়ে নেওয়া হয়।

- with IANS inputs

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in