Karnataka: সিদ্দারামাইয়ার সঙ্গে দেখা করার কথা অস্বীকার করলেন বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পা

সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা ইয়েদুরিয়াপ্পা জানিয়েছেন, আমরা পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ক্ষমতায় আনার লক্ষ্যে কাজ করছি। আমি কখনোই ব্যক্তিগতভাবে সিদ্দারামাইয়ার সঙ্গে দেখা করিনি।
Karnataka: সিদ্দারামাইয়ার সঙ্গে দেখা করার কথা অস্বীকার করলেন বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পা
বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পাফাইল ছবি, বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পার ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

কর্ণাটকের বিরোধী দলনেতা সিদ্দারামাইয়ার সঙ্গে দেখা করার কথা অস্বীকার করলেন বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পা। এক সোশ্যাল মিডিয়া পোষ্টে সদ্য প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা ইয়েদুরিয়াপ্পা জানিয়েছেন, আমরা পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ক্ষমতায় আনার লক্ষ্যে কাজ করছি। আমি কখনোই ব্যক্তিগতভাবে সিদ্দারামাইয়ার সঙ্গে দেখা করিনি। তার কোনো প্রয়োজন নেই। শুধুমাত্র ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০তে আমার জন্মদিনে তাঁর সঙ্গে আমার দেখা হয়েছিলো।

সম্প্রতি রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী এক বিবৃতিতে জানান, বিজেপি ইয়েদুরিয়াপ্পার ঘনিষ্ঠ বৃত্তে থাকা লোকজনকে আইটি তল্লাশির নামে হয়রানি করছে। যে কারণে তিনি রাজ্যে বিজেপিকে কীভাবে দুর্বল করা যায় সেই বিষয়ে আলোচনার জন্য মহীশূরে সিদ্দারামাইয়ার সঙ্গে দেখা করেছিলেন।

কুমারস্বামী আরও জানান, ইয়েদুরিয়াপ্পা এবং তাঁর ছেলে বি ওয়াই বিজয়েন্দ্রকে বিপদে ফেলার জন্যই এই তল্লাশি অভিযান চালানো হয়েছে। যদিও সূত্র অনুসারে, বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পা ঘনিষ্ঠ বি আর উন্মেষ সহ বেশ কিছু ব্যক্তির বাড়ি ও অফিসে আয়কর দপ্তরের এই অভিযানে গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু তথ্য উদ্ধারের পর তিনি নিজেও বিজেপি হাইকম্যান্ডের বিরুদ্ধে ধীরে চলো নীতি নিয়েছেন।

এর আগে ইয়েদুরিয়াপ্পা জানিয়েছিলেন, শুধুমাত্র মোদী ঝড় দিয়ে কর্ণাটকে নির্বাচন জিততে পারবেনা বিজেপি। তাঁর ঘনিষ্ঠ বৃত্তে থাকা সুশীল গৌড়া টুমাকুরু জেলার বিজেপি সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। যদিও বিজেপির পক্ষ থেকে ইয়েদুরিয়াপ্পা ঘনিষ্ঠ দুজনকে মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্মাইয়ের রাজনৈতিক সহায়ক হিসেবে নিযুক্ত করেছে। কিন্তু তিনি তাতে খুশি নন। প্রসঙ্গত, ক্ষমতায় বসার পরেই বোম্মাই জানিয়েছিলেন আগামী রাজ্য বিধানসভা নির্বাচন তাঁর নেতৃত্বেই হবে। যে ঘোষণার পরেই ইয়েদুরিয়াপ্পা ও বোম্মাইয়ের মধ্যে তিক্ততার সৃষ্টি হয়।

জানা গেছে ইয়েদুরিয়াপ্পার ঘনিষ্ঠদের বাড়ি অফিসে তল্লাশির সময় আয়কর দপ্তর হিসাব বহির্ভূত ৭৫০ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে। ৪ রাজ্যের মোট ৪৭টি জায়গায় একসঙ্গে তল্লাশি চালিয়ে এই পরিমাণ অর্থ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

আরও জানা গেছে এই তল্লাশির সময় হিসাব বহির্ভূত নগদ ৪.৬৯ কোটি টাকা, ৮.৬৭ কোটি টাকার সোনার গয়না এবং ২৯.৮৩ লক্ষ টাকার রূপোর গয়না উদ্ধার করা হয়েছে।

সূত্রের ব্যাখ্যা অনুসারে, এই সব টাকার বড়ো অংশ ঘুরপথে ইয়েদুরিয়াপ্পার কাছে আসতো বলে প্রাথমিক অনুমান। ইয়েদুরিয়াপ্পার আমলে সেচ, হাইওয়ে প্রভৃতি ক্ষেত্রে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকার পরিকল্পনা ঘিরে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিলো।

- with Agency Input

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.