Karnataka: 'ধর্ষণকে উপভোগ করুন' বলার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ক্ষমা চাইলেন কর্ণাটকের কংগ্রেস বিধায়ক

গতকাল রাতের ট্যুইটবার্তায় কংগ্রেস বিধায়ক বলেন, কোনো ঘৃণ্য অপরাধকে সামনে নিয়ে আসার উদ্দেশ্য আমার ছিলো না। এ নিতান্তই তাৎক্ষণিক বলে ফেলা। আমি আগামী দিনে শব্দচয়নে সাবধানী হব।
Karnataka: 'ধর্ষণকে উপভোগ করুন' বলার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ক্ষমা চাইলেন কর্ণাটকের কংগ্রেস বিধায়ক
কংগ্রেস বিধায়ক কে আর রমেশ কুমারফাইল ছবি দ্য কুইন্টের সৌজন্যে

'ধর্ষণকে উপভোগ করুন' বলার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ক্ষমা চাইলেন কর্ণাটকের কংগ্রেস বিধায়ক কে আর রমেশ কুমার। গতকাল রাতে এক ট্যুইট বার্তায় তিনি তাঁর মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন। এর আগে বিধানসভা অধিবেশন চলাকালীন তাঁর মন্তব্যে সরগরম হয়ে ওঠে কর্ণাটকের রাজনৈতিক মহল।

গতকাল রাতের ট্যুইটবার্তায় কংগ্রেস বিধায়ক বলেন, কোনো ঘৃণ্য অপরাধকে সামনে নিয়ে আসার উদ্দেশ্য আমার ছিলো না। এ নিতান্তই তাৎক্ষণিক বলে ফেলা। আমি আগামী দিনে শব্দচয়নে সাবধানী হব। ওই ট্যুইটেই তিনি আরও বলেন, আমি আজ বিধানসভায় যে মন্তব্য করেছি, আমার সেই অসাবধানী মন্তব্যের জন্য সকলের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

উল্লেখ্য, গতকাল বিধানসভায় বিতর্ক চলাকালীন বিতর্কিত মন্তব্য করেন কংগ্রেস বিধায়ক কে আর রমেশ কুমার। কৃষকদের সমস্যা নিয়ে বিরোধীরা আলোচনা করতে চাইলে স্পীকার বিশ্বেশ্বর হেগড়ে তাতে অসম্মতি জানান। তিনি বলেন, যদি সবাইকে সময় দিতে হয় তাহলে অধিবেশন কীভাবে চলবে? তিনি আরও বলেন, আপনারা যা খুশি সিদ্ধান্ত নিতে পারেন – আমি তাতেই হ্যাঁ বলব। আমি মনে করি এই পরিস্থিতি উপভোগ করা উচিত। আমি তো সিস্টেম বদলাতে পারবো না। আমাকে অধিবেশন চালাতে হবে।

স্পীকারের এই মন্তব্যের উত্তরে কংগ্রেসের কে আর রমেশ কুমার বলেন – আপনি বিষয়টা এমনভাবে উপস্থাপিত করছেন যেন ধর্ষণ যখন আটকানো যাবে না তখন শুয়ে পড়ুন এবং ধর্ষণকে উপভোগ করুন। আপনার অবস্থা দেখে সেরকমই মনে হচ্ছে।

যদিও এবারই প্রথম নয়। এর আগেও কংগ্রেস বিধায়ক রমেশ কুমার এই ধরণের মন্তব্য করেছেন। গত ২০১৯ সালে তিনি এইধরনেরই এক বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন।

কংগ্রেস বিধায়ক কে আর রমেশ কুমার
Karnataka: মিড ডে মিলে ডিম দেবার সিদ্ধান্তে ধর্মীয় সংগঠনের আপত্তি, বিরোধিতায় সমাজকর্মীরা

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in