৬ বিধায়কের বিরুদ্ধে যাচাই না করা খবর পরিবেশনায় সাময়িক স্থগিতাদেশ কর্নাটকের আদালতের

৬ বিধায়কের বিরুদ্ধে যাচাই না করা খবর পরিবেশনায় সাময়িক স্থগিতাদেশ কর্নাটকের আদালতের
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

যৌন হেনস্থায় অভিযুক্ত ৬ বিধায়কের বিরুদ্ধে কোনওরকম অপমানজনক, যাচাই না করা ('unverified') খবর পরিবেশনার সবকটি ক্ষেত্রে সাময়িকভাবে স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে কর্নাটক একটি আদালত। অভিযুক্ত বিধায়কদের বিরুদ্ধে যে সিডি রয়েছে, তা যেন কোনও মিডিয়াতেই প্রকাশ করা না হয়, সেজন্য তড়িঘড়ি এই নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

এই ৬ বিধায়কই মানহানি মামলায় মিডিয়ার বিরুদ্ধে ইনজাংশান জারির জন্য বেঙ্গালুরুর সিটি সিভিল আদালতে আবেদন জানিয়েছিলেন। অভিযুক্ত বিধায়করা হলেন, শ্রমমন্ত্রী শিবারাম হেব্বার, কৃষিমন্ত্রী বিসি পাটিল, কোঅপারেটিভ মন্ত্রী এসটি সোমাশেখর এবং স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী কে সুধাকর। বাকিরা হলেন, যুব কল্যাণ ও ক্রীড়া মন্ত্রী কেসি নারায়ণ গৌড়া ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ভয়রথি বাসবরাজ।

এর পিছনে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, 'এর পিছনে বড়সড় ষড়যন্ত্র কাজ করছে। বিরোধীদের ভাবমূর্তিকে নষ্ট করতে মিডিয়াকে ব্যবহার করা হচ্ছে। এই ধরনের প্রচার বন্ধ করতেই আমরা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছি। আমরা যে ভাল কাজ করেছি, তার নাম নষ্ট করতেই এমনটা করা হচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। এধরনের বিষয় বন্ধ করতে সরকার নতুন আইন আনার কথা ভাবছে সরকার বলেই তিনি জানান।

শুধু রাজনীতিবিদরাই নয়, বিভিন্ন ক্ষেত্রের সেলিব্রিটিদের ভাবমূর্তি নষ্ট করতেও এমনটা করা হচ্ছে বলে তিনি দাবি করেন। সোশ্যাল মিডিয়া ও মেইনস্ট্রিম মিডিয়াকে কাজে লাগিয়ে ভুল খবর ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, এঁরা সকলেই গত ২০১৯-এ রাজ্যে ক্ষমতা বদলের সময় কংগ্রেস এবং জেডিএস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। পরবর্তী সময় এঁরা বিজেপির মনোনয়নে নির্বাচিত হন এবং মন্ত্রীপদ লাভ করেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in