কর্ণাটকে BJP MLA-দের বৈঠক বাতিল - ইয়েদুরিয়াপ্পার কৌশলের কাছে নতি স্বীকার কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের?

সূত্র অনুসারে, মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পাকে বিধায়কদলের বৈঠক বাতিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলের হাইকম্যান্ডের পক্ষ থেকে। এরপরেই তিনি ওই বৈঠক বাতিল ঘোষণা করেন।
কর্ণাটকে BJP MLA-দের বৈঠক বাতিল - ইয়েদুরিয়াপ্পার কৌশলের কাছে নতি স্বীকার কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের?
বি এস ইয়েদুরাপ্পাফাইল ছবি সংগৃহীত

কর্ণাটক বিজেপি বিধায়কদলের পূর্বঘোষিত বৈঠক বাতিল করলেন মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পা। আগামী ২৫ জুলাই এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিলো। যদিও বিধায়কদলের বৈঠকের বদলে ওইদিন তিনি এক নৈশভোজের আয়োজন করেছেন। এই ঘটনার পরেই বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পার ইস্তফার প্রশ্নে গুঞ্জন আরও বেড়েছে।

সূত্র অনুসারে, মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পাকে বিধায়কদলের বৈঠক বাতিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলের হাইকম্যান্ডের পক্ষ থেকে। এরপরেই তিনি ওই বৈঠক বাতিল ঘোষণা করেন। আগামী ২৬ জুলাই মুখ্যমন্ত্রীত্বের দ্বিতীয় বছর পূর্ণ করবেন ইয়েদুরিয়াপ্পা। রাজনৈতিক মহলের অনুমান ছিলো বিধায়কদলের বৈঠক থেকে ইস্তফার কথা ঘোষণা করবেন মুখ্যমন্ত্রী বি এস।

যদিও এই বৈঠক বাতিল করে এক বেসরকারি হোটেলে যে নৈশভোজ ডাকা হয়েছে প্রশ্ন উঠেছে তা নিয়েও। সূত্রের দাবি – গত কয়েকদিন ধরে ইয়েদুরিয়াপ্পা যেভাবে কৌশলী রাজনীতিতে বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব এবং আরএসএস-এর ওপর চাপ বাড়িয়েছেন তাতে আপাতত রাজ্যের ১৬ শতাংশ লিঙ্গায়েত ভোটের দিকে নজর রেখে পিছু হটেছে দলের হাইকম্যান্ড। এরপরেই বিধায়কদলের বৈঠকের বদলে নৈশভোজ ডাকা হয়েছে এবং আপাতত ইস্তফা দেবেন না বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পা।

মুখ্যমন্ত্রী আগে জানিয়েছিলেন, আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহে তিনি দিল্লি যাবেন এবং কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আরও একদফা আলোচনা হবে। যদিও সূত্র জানাচ্ছে, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কোনো শর্ত মানতে এখনও রাজী নন বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পা।

শোনা যাচ্ছে, বি এসকে রাজী করানোর জন্য দলের হাইকম্যান্ডের পক্ষ থেকে তাঁর ছেলে বি ওয়াই বিজয়েন্দ্রকে উপমুখ্যমন্ত্রী করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। যদিও বি এস তাঁর ছেলের জন্য দলের প্রেসিডেন্টের পদ দাবী করেছেন এবং তাঁর পছন্দের কোনো একজনের জন্য কর্ণাটকে অন্য কোনো পদ।

এর আগে গত সোমবার ১৯ জুলাই রাজ্যে প্রবল প্রভাবশালী বীরাশৈব-লিঙ্গায়েত গোষ্ঠীর ধর্মগুরু রামভাপুরি স্বামীজী জানান, যদি বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বি এস ইয়েদুরিয়াপ্পাকে তাঁর পদ থেকে সরিয়ে দেবার সিদ্ধান্ত নেয় সেক্ষেত্রে আগামীদিনে রাজ্যে বিজেপি বড়ো সমস্যার মুখোমুখি হবে। এরপর গতকাল বেঙ্গালুরুতে একাধিক মঠাধ্যক্ষদের সঙ্গে দেখা করেন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরিয়াপ্পা। যে ঘটনাকে বিজেপি এবং আরএসএসকে ইয়েদুরিয়াপ্পার বার্তা পাঠানো বলে অনুমান রাজনৈতিক মহলের।

- with inputs from IANS

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in