Jharkhand: তিন কংগ্রেস বিধায়ক বরখাস্ত, ঝাড়খন্ডে অপারেশন লোটাস-এর ষড়যন্ত্রের অভিযোগ জয়রাম রমেশের

রবিবার কংগ্রেস তার ঝাড়খণ্ডের তিনজন বিধায়ক - ডঃ ইরফান আনসারি, নমন ভিক্সাল কোঙ্গাদি এবং রাজেশ কাছাপ-কে দলবিরোধী কাজকর্মের জন্য সাসপেন্ড করেছে। গতকাল এই তিন বিধায়ক বিপুল পরিমাণ নগদ সহ ধরা পড়ে।
ঝাড়খন্ডের বরখাস্ত তিন কংগ্রেস বিধায়ক
ঝাড়খন্ডের বরখাস্ত তিন কংগ্রেস বিধায়ক ফাইল ছবি আইএএনএস ট্যুইটারের সৌজন্যে

বেআইনি অর্থ বিতর্ক বাড়বার আগেই ঝাড়খন্ডের তিন দলীয় বিধায়ককে সাসপেন্ড করল কংগ্রেস। রবিবার কংগ্রেস তার ঝাড়খণ্ডের তিনজন বিধায়ক - ডঃ ইরফান আনসারি, নমন ভিক্সাল কোঙ্গাদি এবং রাজেশ কাছাপ-কে দলবিরোধী কাজকর্মের জন্য সাসপেন্ড করেছে। গতকাল পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলায় এই তিন বিধায়ক বিপুল পরিমাণ নগদ সহ ধরা পড়ে।

ঝাড়খণ্ড কংগ্রেসের ইনচার্জ ও দলের সাধারণ সম্পাদক অবিনাশ পান্ডে এক সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, তিন বিধায়কের বিরুদ্ধে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এদিকে, কংগ্রেসের বারমো অঞ্চলের বিধায়ক অনুপ সিং, রবিবার সকালে রাঁচির আরগোরা থানায় এই তিন বিধায়কের বিরুদ্ধে রাজ্য সরকারকে ফেলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে এফআইআর দায়ের করেছেন।

শনিবার সন্ধ্যায়, ঝাড়খণ্ডের তিনজন কংগ্রেস বিধায়ক- ডঃ ইরফান আনসারি, রাজেশ কাছাপ এবং নমন ভিক্সাল কোঙ্গাদি- পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলার পাঁচলা থানার রানিহাটীতে নোটের ব্যাগ সহ ধরা পড়েন। তাঁদের কাছ থেকে নগদ ৪৮ লক্ষ টাকা পাওয়া যায়। এই তিনজন বিধায়ক অন্য দুই সহযোগীর সঙ্গে একটি এসইউভিতে করে যাচ্ছিলেন।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ চেকিংয়ের সময় তাদের আটক করে। এই এসইউভিতে ঝাড়খণ্ডের জামতারা বিধায়কের বোর্ড ছিল। পুলিশ হেফাজতে নেওয়া তিন বিধায়ক গাড়ি থেকে পাওয়া নগদ সম্পর্কে স্পষ্ট তথ্য দিতে পারেননি বলে জানা গেছে।

ঝাড়খণ্ড কংগ্রেস আইনসভা দলের নেতা আলমগীর আলম বলেন, "কংগ্রেসের সংবিধানের ঐতিহ্য যে দলের কোনো বিধায়ক যদি দলবিরোধী কার্যকলাপে জড়িত থাকে, তাহলে তাকে অবিলম্বে বরখাস্ত করা হয়। তিনজন বিধায়ককে সেই কারণেই বরখাস্ত করা হয়েছে। এখন পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তদন্তে যা বেরিয়ে আসবে, দল তাঁর ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে।"

কংগ্রেস বিধায়ক অনুপ সিং অভিযোগ করেছেন "এই তিন বিধায়ক ঝাড়খণ্ডের সরকারের পতনের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিলেন। পশ্চিমবঙ্গে বিপুল পরিমাণ নগদ অর্থসহ ধরা পড়ার পর, এটি স্পষ্ট হয়ে গেছে যে তাদের সাহায্যে সরকার ফেলার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।" কংগ্রেস বিধায়ক অনুপ সিং এই বিষয়ে রাঁচির আরগোরা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন, যার ভিত্তিতে এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে।

কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি রাজেশ ঠাকুরও বিধায়ক অনুপ সিং-এর সঙ্গে ছিলেন, যিনি এফআইআর নথিভুক্ত করতে এসেছিলেন। এর আগে, কংগ্রেস অভিযোগ করে যে বিভিন্ন রাজ্যে জোট সরকার ফেলার লক্ষ্যে 'অপারেশন কমল' এবার উন্মোচিত হয়েছে।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে কংগ্রেস তার রাজ্য ইউনিটের কাছে বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়েছে।

এদিনই এক ট্যুইটে জয়রাম রমেশ জানান, "ঝাড়খণ্ডে বিজেপির ‘অপারেশন লোটাস’ আজ রাতে হাওড়ায় উন্মোচিত হল। দিল্লিতে ‘হাম দো’-এর গেম প্ল্যান হল ঝাড়খণ্ডে যা তারা মহারাষ্ট্রে ই-ডি জুটি করেছিল।"

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in