Jahangirpuri: জাহাঙ্গীরপুরী দাঙ্গায় অভিযুক্তের সাংবাদিক বৈঠক, পুলিশের সঙ্গে ভিডিও প্রকাশ!

তিরাঙ্গা যাত্রা'য় দিল্লির ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ (ডিসিপি- উত্তর পশ্চিম) উষা রঙ্গনানি, সঙ্গে জাহাঙ্গীরপুরী দাঙ্গার অভিযুক্ত তারবেজ
Jahangirpuri: জাহাঙ্গীরপুরী দাঙ্গায় অভিযুক্তের সাংবাদিক বৈঠক, পুলিশের সঙ্গে ভিডিও প্রকাশ!
তিরাঙ্গা যাত্রা'য় দিল্লির ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ (ডিসিপি- উত্তর পশ্চিম) উষা রঙ্গনানি, সঙ্গে জাহাঙ্গীরপুরী দাঙ্গার অভিযুক্ত তারবেজছবি সৌজন্যেঃ IANS ট্যুইটার

আবারও প্রশ্নের মুখে দিল্লি পুলিশের কর্মকাণ্ড। দিল্লির জাহাঙ্গীরপুরী হিংসা মামলায় অভিযুক্ত তাবরেজ খানের একটি ভিডিও প্রকাশ পেয়েছে রবিবার। তাতে দেখা গেছে, দিল্লি পুলিশের উপস্থিতিতেই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন তারবেজ খান। একইসঙ্গে জাহাঙ্গীরপুরী এলাকা থেকে পুলিশ বাহিনী সরানোর কথা বলছেন তিনি। শুধু তাই নয়, এদিন যে 'তিরঙ্গা যাত্রা' হয়, তাতে দিল্লির ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ (ডিসিপি- উত্তর পশ্চিম), উষা রঙ্গনানির সঙ্গে তাকেও অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। আর এই ভিডিও সামনে আসতেই, অনেকে বিষয়টিকে দিল্লি পুলিশের ব্যর্থতা হিসাবে দেখছেন।

সংবাদ সংস্থা আইএনএস জানিয়েছে, তাঁদের হাতে বেশ কিছু তথ্য এসেছে, তাতে স্পষ্ট জাহাঙ্গীরপুরীতে 'তিরঙ্গা যাত্রা' চালানোর জন্য দিল্লি পুলিশকে চিঠি লিখেছিলেন স্বয়ং তারবেজ খান। এদিকে, দিল্লি পুলিশ কর্মকর্তার সাথে তাবরেজের ছবি এবং ভিডিও সামনে আসতেই অস্বস্তিতে পড়েছে দিল্লি পুলিশ প্রশাসন। পরিস্থিতি সামাল দিতে রবিবার একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, 'আমান কমিটির একটি সভা ডাকা হয়েছিল। সেই জমায়েতে অনেক মানুষই এসেছিলেন এবং খান তাদের মধ্যে একজন হতে পারেন।'

পরে রবিবার দুপুরের পর দিল্লি পুলিশ আরও জানিয়েছে, 'সংবাদমাধ্যমে জানানো হচ্ছে, ১৬ এপ্রিল ২০২২-এ জাহাঙ্গীরপুরী দাঙ্গা মামলায় তাবরেজ আলম নামে এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশের অপরাধ দমন শাখা।' বার্তায় আরও বলা হয়েছে, 'জাহাঙ্গীরপুরী এলাকায় শান্তি আমান কমিটির অন্যতম সদস্য হলেন তারবেজ।

গত ২০ এপ্রিল, জাহাঙ্গীরপুরী এলাকায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও শান্তির বার্তা নিয়ে যে তিরঙ্গা যাত্রা হয়, তারবেজ তার অন্যতম সংগঠক ছিলেন। এ বিষয়ে এটি স্পষ্ট করা হয়েছে যে, জাহাঙ্গীরপুরীতে দাঙ্গার পরে এলাকায় শান্তি ও শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠার জন্য দিল্লি পুলিশের অত্যন্ত মনোযোগী।' তবে দিল্লি পুলিশের এই স্পষ্টীকরণ সত্ত্বেও প্রশ্ন উঠেছে, জাহাঙ্গীরপুরী হিংসার পরে কীভাবে সেই সময়ে অভিযুক্তদের সনাক্ত করতে ব্যর্থ হয়েছে দিল্লি পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ? কিভাবে, পুলিশের সঙ্গে খানের ছবি সামনে আসে?

তিরাঙ্গা যাত্রা'য় দিল্লির ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ (ডিসিপি- উত্তর পশ্চিম) উষা রঙ্গনানি, সঙ্গে জাহাঙ্গীরপুরী দাঙ্গার অভিযুক্ত তারবেজ
দিল্লি হিংসা নিয়ে উত্তেজনাপূর্ণ, উস্কানিমূলক খবর না করার পরামর্শ কেন্দ্রের

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.