Jabalpur: VHP নেতার বিরুদ্ধে জাল রেমডিসিভির বিক্রির অভিযোগে মামলা, CBI তদন্তের দাবি কংগ্রেসের

অতিরিক্ত পুলিশ ‌সুপার রোহিত কাশওয়ানি জানিয়েছেন, "অভিযুক্তরা হলেন সরবজিৎ সিং মোখা, দেবেন্দ্র চৌরাসিয়া এবং স্বপন জৈন। ভারতীয় দন্ডবিধির ২৭৪, ২৭৫, ৩০৮ ও ৪২০ ধারায় এদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।
Jabalpur: VHP নেতার বিরুদ্ধে জাল রেমডিসিভির বিক্রির অভিযোগে মামলা, CBI তদন্তের দাবি কংগ্রেসের
ফাইল ছবি সংগৃহীত

জাল রেমডেসিভির কান্ডে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের এক নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলো জব্বলপুর পুলিশ। মহামারীর সময় মানুষের অসহায়তার সুযোগ নিয়ে লক্ষাধিক টাকার জাল রেমডেসিভির বিক্রির অভিযোগ উঠেছে জব্বলপুরের নর্মদা ডিভিশনের ভিএইচপি সভাপতির বিরুদ্ধে। ভিএইচপি নেতা ছাড়াও তাঁর দুই বন্ধুর বিরুদ্ধেও মামলা রুজু হয়েছে।

জব্বলপুরের অতিরিক্ত পুলিশ ‌সুপার রোহিত কাশওয়ানি জানিয়েছেন, "অভিযুক্তরা হলেন সরবজিৎ সিং মোখা, দেবেন্দ্র চৌরাসিয়া এবং স্বপন জৈন। ভারতীয় দন্ডবিধির ২৭৪, ২৭৫, ৩০৮ ও ৪২০ ধারায় তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও বিপর্যয় মোকাবিলা আইন এবং ড্রাগস ও কসমেটিকস আইনেও মামলা দায়ের করা হয়েছে।"

ভিএইচপি সভাপতি সরবজিৎ সিং মোখা জব্বলপুরের সিটি হাসপাতালের মালিক। দেবেন্দ্র চৌরাসিয়া ওই হাসপাতালের ম‍্যানেজার এবং স্বপন জৈনের বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানির ডিলারশিপ রয়েছে। এই স্বপন জৈনকে সুরাত পুলিশ গ্রেফতার করলেও, মোখা এবং চৌরাসিয়া এখনও পলাতক।

সূত্র অনুসারে, সরকারের এক শীর্ষস্থানীয় মন্ত্রীর ছেলের সাথে যোগাযোগ রয়েছে এই ব্যক্তির। তাঁরই মারফত ইন্দোর থেকে ৫০০ জাল রেমডেসিভির ইঞ্জেকশন পেয়েছেন মোখা। রোগীর পরিবারকে ৩৫ থেকে ৪০ হাজার টাকায় এক একটি ইঞ্জেকশন বিক্রি করেছেন তিনি।

এই ঘটনা প্রকাশ‍্যে আসার পর জাল রেমডেসিভির র‍্যাকেটের সিবিআই তদন্তের দাবি তুলেছে কংগ্রেস। কংগ্রেসের অভিযোগ, লবণ ও গ্লুকোজ ব‍্যবহার করে দেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রচুর জাল রেমডেসিভির তৈরি হচ্ছে এবং দালাল চক্রের মাধ্যমে দেশের সর্বত্র ছেয়ে গেছে তা।

কংগ্রেসের রাজ‍্যসভার সদস্য বিবেক টঙ্খা নিজের ট‍্যুইটারে সিবিআইয়ের অফিসিয়াল অ‍্যাকাউন্ট ট‍্যাগ করে লেখেন, "সিবিআইয়ের উচিত এই মাল্টি-স্টেট স্ক‍্যামের তদন্ত করা। ইন্দোরে ৩,০০০ টি এবং জব্বলপুরে ৩,৫০০টি এরকম ইঞ্জেকশন এসেছে। কারা এই ইঞ্জেকশন দিয়েছে? সিবিআই যদি এই ঘটনার তদন্ত না করে, তাহলে আমরা আদলতে যাব।"

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in