ভারতে করোনার 'সুপার স্প্রেডার' ইভেন্ট ছিল কুম্ভমেলা: রিপোর্ট

মাস্ক বিহীন বিশাল সংখ্যক ভক্ত গঙ্গায় পূণ্য অর্জনের আশায় ডুব দিয়েছিলেন। আর সেখান থেকেই সংক্রমণ আরও বেশি দ্রুত হারে ছড়িয়েছে।
ভারতে করোনার 'সুপার স্প্রেডার' ইভেন্ট ছিল কুম্ভমেলা: রিপোর্ট
ছবি- রয়টার্স

নয়াদিল্লি, ১১ মে: মার্চের ৩১ থেকে এপ্রিলের ২৪ তারিখ পর্যন্ত হরিদ্বারে কুম্ভস্থানে প্রায় ৩.৫ মিলিয়ন ভক্তর সমাগম করোনা মহামারিতে 'সুপার স্প্রেডার' হিসেবে কাজ করেছে। বিবিসি রিপোর্টে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। ভক্তরা কুম্ভস্নান থেকে ফিরে রাজস্থান, ওডিশা, গুজরাত এবং মধ্যপ্রদেশে করোনা সংক্রমণের হার আরও বেশি করে ছড়িয়ে দিয়েছেন।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ-(আইসিএমআর) এর মহামারি ও সংক্রমক রোগ বিভাগের প্রাক্তন প্রধান ললিত কান্ত বিবিসিকে জানিয়েছে, মাস্ক বিহীন বিশাল সংখ্যক ভক্ত গঙ্গায় পূণ্য অর্জনের আশায় ডুব দিয়েছিলেন। আর সেখান থেকেই সংক্রমণ আরও বেশি দ্রুত হারে ছড়িয়েছে। ইতিমধ্যেই চার্চে সমবেত হয়ে প্রার্থনা করা এবং মন্দিরে গিয়ে প্রার্থনা করা সুপার স্প্রেডারের কাজ করেছে। তারপরেও হরিদ্বার প্রশাসন জানিয়েছে, মাত্র ২ হাজার ৬৪২ জন ভক্ত কোভিড পজিটিভ হয়েছেন!

বিবিসি রিপোর্ট বলছে, নেপালের রাজা জ্ঞানেন্দ্র শাহ ও তার স্ত্রী কোমাল শাহ কুম্ভ থেকে ফিরে কোভিড পজিটিভ হয়েছেন। বলিউডের মিউজিক কম্পোজার শ্রবণ রাঠৌর তো কুম্ভ থেকে ফিরে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। জানা গিয়েছে, পূণ্য করতে গিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭৪ হাজার মানুষ। যার মধ্যে বেশিরভাগই উত্তরাখণ্ডের মানুষ রয়েছে।

এদিকে উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট রাজ্য সরকারকে এক হাত নিয়েছে সোমবার। মহামারির সময় সরকারের ভূমিকা নিয়ে এক জনস্বার্থ মামলার প্রেক্ষিতে বিচারপতি আরএস চৌহান ও বিচারপতি অরোক কুমার বর্মা বলেন, 'আমরা মহামারির সময় উটপাখির মতো আচরণে করে বালির মধ্যে মুখ ঢুকিয়ে রাখতে পারিনা।' গত এক বছর ধরে মহামারি আবহে রাজ্য সরকার কেন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি, যেখানে তৃতীয় ঢেউ আসতে চলেছে বলেও প্রশ্ন করে আদালত।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in