Joshimath: মাত্র ১২ দিনেই ৫.৫ সেমি বসে গেছে যোশীমঠ! ইসরোর রিপোর্টে আতঙ্কে বাসিন্দারা

স্থানীয় সমস্ত হোটেল ও বাড়ি খালি করে দেওয়া হচ্ছে। উত্তরাখণ্ড প্রশাসনের তরফ থেকে লাল সতর্কতা জারি করে বিপজ্জনক বাড়ি ও হোটেলগুলি ভেঙে ফেলা হবে বলে জানা গেছে।
মাত্র ১২ দিনেই ৫.৫ সেমি বসে গেছে যোশীমঠ
মাত্র ১২ দিনেই ৫.৫ সেমি বসে গেছে যোশীমঠ

যোশীমঠের ভূমিধস নিয়ে ভয়াবহ চিত্র ধরা পড়ল ইসরোর উপগ্রহ চিত্রে। এই রিপোর্ট প্রকাশ্যে আসতেই আরও আতঙ্ক ছড়িয়েছে স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে।

ইসরোর ন্যাশনাল রিমোট সেন্সিং সেন্টারের পেশ করা রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে ১২ দিন অর্থাৎ ২৭ ডিসেম্বর থেকে ৮ জানুয়ারির মধ্যে প্রায় সাড়ে ৫ সেমি নীচে নেমেছে যোশীমঠ। দেখা যাচ্ছে, ২০২২-র এপ্রিল থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত যোশীমঠের ভূমির স্তর নেমেছিল ৯ সেমি। সেখানে মাত্র ১২ দিনে ভূমিস্তর নেমেছে ৫.৪ সেমি। অর্থাৎ দ্রুত ভূমিধস হচ্ছে। স্থানীয় সমস্ত হোটেল ও বাড়ি খালি করে দেওয়া হচ্ছে। তবে শুধু যোশীমঠই নয় গাড়োয়াল হিমালয় উপত্যকার অনেক অঞ্চলেই ভূমি ধসের আশঙ্কা রয়েছে। উত্তরাখণ্ড প্রশাসনের তরফ থেকে লাল সতর্কতা জারি করে বিপজ্জনক বাড়ি ও হোটেলগুলি ভেঙে ফেলা হবে বলে জানা গেছে।

এর আগে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম NDTV জানিয়েছিল, অনেক আগেই ২০২০-র মার্চ থেকে শুরু করে ২০২২-র জুলাই পর্যন্ত উপগ্রহচিত্র (Satellite Picture) বিশ্লেষণ করেছিল দেরাদুনের সরকারি সংস্থা ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ রিমোট সেন্সিং (Indian Institute of Remote Sensing)। তাতে যোশীমঠ এবং তার আশপাশের এলাকার পাহাড়ে একাধিক ফাটল লক্ষ্য করা গেছে। কিন্তু তারপরেও যোশীমঠের তপোবন জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজ বন্ধ রাখেনি ন্যাশনাল থার্মাল পাওয়ার কর্পোরেশন বা NTPC। জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের জন্য সমানে চলে সুড়ঙ্গ খোঁড়ার কাজ।

যোশীমঠের পাশাপাশি যে শহরগুলি ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে, তার মধ্যে রয়েছে - চামোলি জেলার কর্ণপ্রয়াগ ও গোপেশ্বর (যেখানে যোশীমঠ অবস্থিত), তেহরি জেলার ঘানসালি, পিথোরাগড় জেলার মুন্সিয়ারি ও ধারচুলা, উত্তরকাশী জেলার ভাটওয়ারি অঞ্চল। এমনকি, পাউরি ও পর্যটকদের আকর্ষণের জায়গা নৈনিতাল নিয়েও আশঙ্কার কথা শুনিয়েছেন বিশেষজ্ঞ মহল।

মাত্র ১২ দিনেই ৫.৫ সেমি বসে গেছে যোশীমঠ
Joshimath: 'গুজবে কান দেবেন না, মাত্র ২৫ শতাংশ বাড়িতে ফাটল' - উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
logo
People's Reporter
www.peoplesreporter.in