যদি অপরাধী পালিয়ে যেতে চায়, তাহলে গুলি করাই উচিত - এনকাউন্টার প্রসঙ্গে অসমের মুখ্যমন্ত্রীর সাফাই

অসমে সম্প্রতি পুলিশের গুলিতে মৃত্যু বেড়েছে। তার মধ্যেই সোমবার অফিসার-ইন-চার্জদের সঙ্গে বৈঠকে বসে একাধিক নির্দেশ দিলেন হিমন্ত।
যদি অপরাধী পালিয়ে যেতে চায়, তাহলে গুলি করাই উচিত - এনকাউন্টার প্রসঙ্গে অসমের মুখ্যমন্ত্রীর সাফাই
হিমন্ত বিশ্ব শর্মাফাইল ছবি সংগৃহীত

এনকাউন্টারের ধরণ বাতলে দিলেন খোদ অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা! হেপাজত থেকে যদি অপরাধী পালিয়ে যেতে চায়, তাহলে তাকে গুলি করার একটা প্যাটার্ন থাকা উচিত। অপরাধী যদি পুলিশের অস্ত্র কেড়ে পালিয়ে যেতে চায়, তখন তার ওপর সোজা গুলি চালিয়ে দেওয়া উচিত। এমনই মত অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মার।

অসমে সম্প্রতি পুলিশের গুলিতে মৃত্যু বেড়েছে। তার মধ্যেই সোমবার অফিসার-ইন-চার্জদের সঙ্গে বৈঠকে বসে একাধিক নির্দেশ দিলেন হিমন্ত। তাঁর মতে, মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধের কোনও ক্ষমা চলবে না। পাশাপাশি চার্জশিট লেখা নিয়েও পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রথম ওসিদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দেন, ধর্ষণ, শ্লীলতাহানির চার্জশিট যেন দ্রুত পেশ করা হয়। পাশাপাশি খুন, অস্ত্র আইন ভঙ্গের ক্ষেত্রে যেন দ্রুত ট্রায়ালের মুখে পড়তে হয় অভিযুক্তকে। পিটিআইকে তিনি জানান, কেউ যদি পুলিশের বন্দুক নিয়ে বা হঠাৎ পালাতে চায়, তখন আইনে তাঁর পায়ে গুলি করার অনুমতি রয়েছে, বুকে নয়। তিনি বলেন, 'যখন কেউ আমাকে প্রশ্ন করে কেন গুলি চালানোর ঘটনা আপনার রাজ্যে একটা প্যাটার্ন হয়ে যাচ্ছে? তখন আমি বলি এটা প্যাটার্ন হওয়া উচিত। কারণ এটা হেপাজত থেকে কোনও অপরাধীকে পালিয়ে যেতে রুখে দেয়।'

উল্লেখ্য, গত মে মাস থেকে অন্তত ১২ জনের অসম পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে, যাঁরা হেপাজত থেকে পালিয়ে যেতে চাইছিল। ধর্ষণ ও গোরু পাচার চক্রে অভিযুক্ত অনেকেই পুলিশের গুলিতে আহতও হয়েছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in