মোদী জমানায় পেট্রোপণ্যের উপর বিপুল কর - কেন্দ্রের আয় বেড়েছে ১৮৬ শতাংশ

মোদী জমানার শুরুতে অর্থাৎ ২০১৪-১৫ সালে পেট্রোল-ডিজেলে কর বাবদ রাজ্য ও কেন্দ্রের মোট আয় ছিল ৩ লক্ষ ৩২ হাজার ৬২০ কোটি টাকা। ২০২০-২১ সালে তা বেড়ে হয়েছে মোট ৭ লক্ষ ৭৪ হাজার ৪২৫ কোটি টাকা।
মোদী জমানায় পেট্রোপণ্যের উপর কর বাবদ কেন্দ্রের আয় বেড়েছে ১৮৬ শতাংশ
মোদী জমানায় পেট্রোপণ্যের উপর কর বাবদ কেন্দ্রের আয় বেড়েছে ১৮৬ শতাংশগ্রাফিক্স - সুমিত্রা নন্দন

মোদী জমানায় পেট্রোল, ডিজেলে কর বাবদ কেন্দ্রের আয় বেড়েছে ১৮৬ শতাংশ। শুধু তাই নয়, রাজ্যেরও আয় বেড়েছে ৭৫ শতাংশ হারে। সোমবার সংসদে একথা জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামেশ্বর তেলি।

কেন্দ্রের তথ্য অনুসারে, ২০১৪ সালে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় ফেরার আগে পেট্রোলের উপর কেন্দ্রের আবগারি শুল্ক ছিল লিটার প্রতি ৯.৪৮ টাকা এবং ডিজেলে ৩.৫৬ টাকা। কিন্তু, গত ৭ বছরে সেটি বেড়ে দাঁড়িয়েছে - পেট্রোলে ১৯.৯০ টাকা এবং ডিজেলে ১৫.৮০ টাকা।

মোদী জমানার শুরুতে অর্থাৎ ২০১৪-১৫ সালে পেট্রোল-ডিজেলে কর বাবদ রাজ্য ও কেন্দ্রের মোট আয় ছিল ৩ লক্ষ ৩২ হাজার ৬২০ কোটি টাকা। ২০২০-২১ সালে তা বেড়ে হয়েছে মোট ৭ লক্ষ ৭৪ হাজার ৪২৫ কোটি টাকা।

রাজ্য এবং কেন্দ্রের আয় আলাদা আলাদা ভাবে জানিয়েছেন পেট্রোলিয়াম দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী রামেশ্বর তেলি। ২০১৪-১৫ সালে কেন্দ্রের কর বাবদ আয় ছিল ১ লক্ষ ৭২ হাজার ৬৫ কোটি টাকা। ২০২০-২১ সালে কেন্দ্রের আয় বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ৯২ হাজার ৩০৩ কোটি টাকা। অন্যদিকে, ২০১৪-১৫ সালে পেট্রোপণ্যে কর বাবদ রাজ্যের আয় ছিল ১ লক্ষ ৬০ হাজার ৫৫৪ কোটি টাকা। ২০২০-২১ সালে তা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ৮২ হাজার ১২২ কোটি টাকা।

মন্ত্রী রামেশ্বর তেলির পেশ করা তথ্য থেকে বোঝা যাচ্ছে, পেট্রোপণ্যের উপর বিপুল কর বসিয়েছে মোদী সরকার। একই সঙ্গে দেখা গেছে, মহামারী পরিস্থিতিতে বিদেশে অশোধিত তেলের দাম কমে তলানিতে গেলেও সেই সময় ভারতে বিপুল হারে কর চাপানো হয়েছে। শুধু উৎপাদন শুল্কই বাড়ানো হয়নি, তার সঙ্গে বেড়েছে সেসও।

তথ্যে আরও উল্লেখ রয়েছে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ কর বাবদ ২০১৪-১৫ সালে কেন্দ্রের মোট আয় ছিল ১৫ লক্ষ ৮৫ হাজার ৯২২ কোটি টাকা। এর ৫ শতাংশ, অর্থাৎ ৩.২২ লক্ষ কোটি আয় হয়েছিল পেট্ট্রোপণ্যে কর বাবদ আয় থেকে।

২০২১-২২ সালে কেন্দ্রের মোট কর বাবদ আয় বেড়ে হয়েছে ৩৫ লক্ষ ৯৫ হাজার কোটি টাকা। তার ৫ শতাংশ ৭.৭৪ হাজার কোটি টাকা আয় হয়েছে পেট্রোপণ্যে কর বাবদ আয় থেকে।

মন্ত্রী রামেশ্বর তেলি জানিয়েছেন, পেট্ট্রোপণ্যে কর বাবদ যা আয় হয়, পঞ্চম অর্থ কমিশনের সুপারিশ মেনে তার ৪১ শতাংশ দেওয়া হয় রাজ্যকে। এই নিয়ম অনুযায়ী, ২০২০-২১ সালে পেট্ট্রোপণ্যে কর বাবদ পশ্চিমবঙ্গের ভাগে গিয়েছে ২ হাজার ৭১৫ কোটি টাকা।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in