স্কলারশিপ দুর্নীতি ফাঁস করে গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন, এবার UPSC উত্তীর্ণ হলেন PCS অফিসার রিঙ্কু রাহী

সদ্য ফলাফল ঘোষণা হয়েছে UPSC-র। সেখানে তিনি ৬৮৩ তম স্থান অধিকার করেছেন। UPSC-বোর্ড বিশেষ কিছু বিভাগের জন্য প্রার্থীদের বয়স শিথিল করেছে। এই নিয়মে সাহায্য হয়েছে ৪০ বছর বয়সী রিঙ্কু রাহীর।
স্কলারশিপ দুর্নীতি ফাঁস করে গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন, এবার UPSC উত্তীর্ণ হলেন PCS অফিসার রিঙ্কু রাহী
রিঙ্কু রাহী

উত্তরপ্রদেশের রিঙ্কু সিং রাহী। UPSC পরীক্ষায় র‍্যাঙ্ক করেছেন ৬৮৩। বর্তমানে ৪০ বছর বয়সী এই PSC অফিসার, ২০০৮ সালে উত্তরপ্রদেশের পরীক্ষা সংক্রান্ত দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন। মাত্র ২৬ বছর বয়সে স্কলারশিপ সংক্রান্ত দুর্নীতি হাতেনাতে ধরেছিলেন তিনি। প্রায় ১০০ কোটি টাকার এই দুর্নীতি প্রকাশ্যে আসার পর, মাফিয়ারা বেলাগামভাবে পরপর ৭টি গুলি করে হত্যার চেষ্টা করে তাঁকে।

গুলির আঘাতে মুখমণ্ডল বিকৃত হয়ে যায় রিঙ্কুর। তাঁর এক চোখ অন্ধ এবং একটি কানে শ্রবণশক্তিহীন হয়ে পড়ে। চিকিৎসার পর শারীরিকভাবে একটু সুস্থ হয়ে ওঠার পরই UPSC পরীক্ষা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন PCS অফিসার রিঙ্কু রাহী। সদ্য ফলাফল ঘোষণা হয়েছে UPSC-এর। সেখানে তিনি ৬৮৩ তম স্থান অধিকার করেছেন। UPSC-বোর্ড বিশেষ কিছু বিভাগের জন্য প্রার্থীদের বয়স শিথিল করেছে। এই নিয়মে যথেষ্ট সুবিধা হয়েছে ৪০ বছর বয়সী রিঙ্কু রাহীর।

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালে উত্তরপ্রদেশের মুজাফফরনগরে সমাজকল্যাণ দপ্তরে নিযুক্ত হবার পর এই PCS অফিসার একটি বিশাল র‍্যাকেট ফাঁস করেন। পরীক্ষায় স্কলারশিপের বড় অঙ্কের টাকা নিয়ে দুর্নীতির চক্র তিনি ফাঁস করেন। ফলস্বরূপ ভয়াবহ হামলা হয় রিঙ্কুর ওপর। হামলার সময় ওই কেলেঙ্কারির সমস্ত প্রমাণ তাঁর কাছে ছিল। তাঁকে হত্যা করে সমস্ত প্রমাণ মুছে ফেলতে চেয়েছিল দুষ্কৃতীরা। অভিযুক্ত ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল, যার মধ্যে চারজনকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। রিঙ্কুর বয়ানে উঠে আসে, চিকিৎসাকালীন অবস্থায়, সিস্টেমের সাথে তাঁর যুদ্ধ চলছিল। যে ৪ মাস তিনি হাসপাতালে ছিলেন, সেই ৪ মাসের চিকিৎসাবাবদ ছুটি আজ পর্যন্ত অনুমোদনের জন্য আটকে আছে।

রিঙ্কু রাহী একটি সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, মায়াবতীর সরকারের আমলে তার উপর হামলা হয়েছিল। সমাজবাদী পার্টির শাসনকালে তাঁকে একটি মানসিক ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছিল। কারণ হিসাবে ব্যাখ্যা করা হয়, দুর্নীতির বিরুদ্ধে বেশি প্রতিবাদ করার জন্য তাঁর মানসিক চিকিৎসা প্রয়োজন। রাহী স্মৃতি থেকে বলেছেন, তিনি ছেলেবেলা থেকেই কষ্ট করে বড় হয়েছেন। ছোট থেকে অনেক দুর্নীতি প্রত্যক্ষ করেছেন। তাই আর্থিক ও পারিবারিক কষ্ট কাটিয়ে উঠে সরকারী অফিসার হওয়া ও দুর্নীতি রোখা ছিল তাঁর উদ্দেশ্য।

বর্তমানে রিঙ্কু রাহী একজন আট বছরের এক সন্তানের বাবা। সরকারী ব্যবস্থাপনা নিয়ে রিঙ্কু বলেছেন, প্রলোভন তাঁর দরজায় কড়া নাড়তে পারেনি এমনটা নয়। তবে তাঁর সদা খেয়াল থাকত, যদি কখনও বাজে কাজে লিপ্ত হন তাহলে তাঁর পরিবারের ক্ষতি হতে পারে। উল্লেখ্য, ভবিষ্যতে তাঁর উপর আরও কোনও হামলার আশঙ্কায় তিনি নিজের জীবনবীমা করিয়েছেন।

রিঙ্কু রাহী
স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির অত্যাচার কাটিয়ে UPSC-তে ১৭৭ র‍্যাঙ্ক করলেন ৭ বছরের মেয়ের মা শিবাঙ্গী

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in