Haryana: বিজেপি সাংসদকে ঘিরে কৃষকদের বিক্ষোভ, কালো পতাকা, গাড়ি ভাঙচুর - গ্রেপ্তার ২

গতকাল রোহতকে একই রকম প্রতিবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন সাংসদ। একটি গোশালায় দীপাবলি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে তিনি আন্দোলনকারী কৃষকদের “বেকার মদ্যপ”বলে কটাক্ষ করেছিলেন।
Haryana: বিজেপি সাংসদকে ঘিরে কৃষকদের বিক্ষোভ, কালো পতাকা, গাড়ি ভাঙচুর - গ্রেপ্তার ২
বিজেপি সাংসদ রাম চন্দর জাংরাফাইল ছবি সংগৃহীত

বিজেপির রাজ্যসভার সদস্য রাম চন্দর জাংরা আজ হরিয়ানার একটি ধর্মশালা (সরাসরা) উদ্বোধন করতে নার্নাউন্দ শহরে পৌঁছেছিলেন। তখন হিসার জেলার কৃষকরা তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে শ্লোগান দিতে থাকেন। কালো পতাকাও দেখানো হয় তাঁকে। পুলিশ ও কৃষকদের মধ্যে সংঘর্ষে তাঁর গাড়ির উইন্ডশিল্ডও ভেঙে যায়। সাংসদ বলেন, এটি ‘স্পষ্ট খুনের চেষ্টা’।

কৃষকদের আটকাতে ব্যারিকেড দিয়েছিল হরিয়ানার পুলিশ। কিন্তু ভিড়ের চাপে সেই ব্যারিকেড ভেঙে যায়। পুলিশের সঙ্গে ধ্বস্তাধস্তির সময় কৃষকরা কালো পতাকা হাতে “কৃষি আইন”-এর বিরুদ্ধে শ্লোগান দিচ্ছিলেন। ঘটনাস্থলে বিজেপি কর্মীরাও কৃষি আইনের সমর্থনে শ্লোগান দিতে থাকেন।

রাম চন্দর জাংরা বলেন – “আমার কর্মসূচী শেষ করার পর অন্য একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলাম। এমন সময় কিছু লোক আমার গাড়ির উপর লাঠি ছোঁড়ে, অবশ্য কেউ আহত হয়নি”। তাঁর অভিযোগ, তাঁকে খুন করার চেষ্টা করেছে কৃষকরা। তাঁর কথায় – “আমি এই ঘটনার বিষয়ে হরিয়ানার ডিজিপি এবং এসপির সাথে কথা বলেছি। অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কঠোর শাস্তি দাবি করছি। এটি স্পষ্ট হত্যা প্রচেষ্টা”।

গতকাল রোহতকে একই রকম প্রতিবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন সাংসদ। একটি গোশালায় দীপাবলি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে তিনি আন্দোলনকারী কৃষকদের “বেকার মদ্যপ”বলে কটাক্ষ করেছিলেন। তিনি আরও বলেছিলেন যে – আন্দোলনকারীরা কেউ কৃষক না। তাঁর এই মন্তব্য হিসারে বিক্ষোভের সূত্রপাত করে।

সাংসদের এই মন্তব্যের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ভিডিও ভাইরাল হয়। যেখানে তিনি বলছেন – “কৃষি আইনের কোন বিরোধিতাই নেই। যারা প্রতিবাদ করছে তারা গ্রামের বেকার মদ্যপ। সম্প্রতি সিঙ্ঘু সীমান্তে তারা একজন নিরপরাধ ব্যক্তিকে হত্যা করেছে। আমি নিয়মিত দিল্লি যাচ্ছি এবং দেখছি তাদের বেশিরভাগ তাঁবু খালি”।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in