Gujarat: আহমেদাবাদে 'ডিমোলিশান ড্রাইভ' - বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ বাসিন্দাদের ভোট বয়কটের হুমকি

মঙ্গলবার আহমেদাবাদের ইসানপুর এলাকায় রাজ্য সরকারের ‘ডিমোলিশান ড্রাইভ’ নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়। যেখানে বেশ কয়েকটি নির্মাণ ভেঙে ফেলার পরে স্থানীয় বাসিন্দারা ভোট বয়কট করার হুমকি দেয়।
Gujarat: আহমেদাবাদে 'ডিমোলিশান ড্রাইভ' - বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ বাসিন্দাদের ভোট বয়কটের হুমকি
ডিমোলিশান ড্রাইভের বিরুদ্ধে স্থানীয় বাসিন্দাদের বিক্ষোভ ছবি সৌজন্য, উনমিড ডট কম

এই বছরের শেষের দিকে গুজরাট বিধানসভা নির্বাচন। যা নিয়ে একটু একটু করে রাজনৈতিক তৎপরতা শুরু হয়েছে। এর মাঝেই মঙ্গলবার আহমেদাবাদের ইসানপুর এলাকায় রাজ্য সরকারের ‘ডিমোলিশান ড্রাইভ’ নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়। যেখানে বেশ কয়েকটি নির্মাণ ভেঙে ফেলার পরে স্থানীয় বাসিন্দারা ভোট বয়কট করার হুমকি দেয়।

গতকাল বেশ কয়েকটি বাড়ি ভেঙে ফেলার পর 'নির্বাচন বয়কট' ব্যানার টাঙিয়ে বিক্ষোভ দেখানো শুরু করে স্থানীয় মানুষ। ইসানপুরের স্থানীয় বাসিন্দারা ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে।

বিক্ষোভকারীদের পক্ষ থেকে পুলিশ ও কর্পোরেটরদের বিরুদ্ধে ভয় দেখানোর গুরুতর অভিযোগ তোলা হয়েছে। স্থানীয়রা লাম্বা বোর্ড টিপি ৫৪ প্রকল্পের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছিলো। এই নতুন টিপি স্কিমের রাস্তা তৈরি করতে পাঁচটি সমিতির প্রায় ৪০টি কাঠামো ভেঙে ফেলা হয়েছে।

স্থানীয়দের বক্তব্য অনুসারে, তাদের কোন ধরনের নোটিশ দেওয়া হয়নি। অন্যদিকে স্থানীয় কর্পোরেটরও তাদের কথা শুনতে রাজি ছিলেন না। এক প্রতিবাদকারী জানিয়েছেন, "আমরা স্থানীয় কর্পোরেটর মানসিংহ সোলাঙ্কির সাথে কথা বলার চেষ্টা করেছি, কিন্তু তিনি আমাদের ফোন ধরেননি বা আমাদের প্রশ্নের উত্তর দেননি।"

স্থানীয় বাসিন্দা নৈনেশ গাজ্জার আইএএনএস-কে জানিয়েছেন কোনও পূর্ব বিজ্ঞপ্তি না দিয়েই নির্মাণগুলি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, "আমাদের সোসাইটির সামনে এক বিল্ডারের একটি স্কিম আছে এবং সেই বিল্ডারকে সুবিধা করে দিতে কর্পোরেটর আমাদের সাথে এটি করেছে। আমাদের মধ্যে অনেকেই দৈনিক মজুরি বা ছোট ব্যবসা বা ব্যক্তিগত চাকরি করি। আমরা ইচ্ছে হলেই একটি নতুন বাড়ি কিনতে পারি না বা আমাদের অন্য বাড়িতে উঠে যাওয়ার সামর্থ্যও নেই। প্রশাসন ৪০ টি পরিবারকে গৃহহীন করেছে শুধুমাত্র একজন নির্মাতার উপকার করার জন্য।"

- with inputs from IANS

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in