ধর্ষণের মামলা থেকে বেকসুর খালাস প্রাক্তন বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দ

উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুরে এক আইনের ছাত্রীকে যৌন হেনস্থা ও ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ছিলেন তিনি। বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ খারিজ করে বিশেষ বিচারপতি জানান, অভিযোগকারীণী তাঁর অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেননি।
ধর্ষণের মামলা থেকে বেকসুর খালাস প্রাক্তন বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দ
স্বামী চিন্ময়ানন্দফাইল ছবি সংগৃহীত

ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত প্রাক্তন বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন কেন্ত্রীয় মন্ত্রী চিন্ময়ানন্দকে বেকসুর খালাস করল লখনউয়ের বিশেষ আদালত। উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুরে এক আইনের ছাত্রীকে যৌন হেনস্থা ও ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ছিলেন তিনি। বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে সব অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে বিশেষ বিচারপতি পিকে রাই জানান, অভিযোগকারীণী তাঁর অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেননি। আর উপযুক্ত তথ্য প্রমাণের অভাবে কখনই সন্দেহের বশে অভিযুক্তকে দোষী বলা যায় না।

এই মামলায় অন্য একজন অভিযোগকারীকেও বেকসুর খালাস করেছে আদালত। আদালতের রায় ঘোষণার সময় চিন্ময়ানন্দ ও অন্যান্য অভিযুক্তরাও আদালতে হাজির ছিলেন। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৭ অগস্ট শাহজাহানপুরে কোতোয়ালী পুলিশ স্টেশনে চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

অভিযোগকারীণীর বাবার অভিযোগের ভিত্তিতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।ছাত্রীর বাবার অভিযোগ, এই ঘটনার পর চিন্ময়ানন্দ নিজের ফোন অফ করে রেখেছিলেন। তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। এরপর ২০১৯ সালের ২০ সেপ্টেম্বর চিন্ময়ানন্দকে গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠানো হয়। পরে ২০১৯ সালের ৪ নভেম্বর একটি চার্জশিট ফাইল করা হয় ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬-সি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়।

অন্যদিকে, আইনজীবী ওম সিং অভিযোগকারীণী ছাত্রী ও তার বন্ধুর বিরুদ্ধে চিন্ময়ানন্দর কাছ থেকে ৫ কোটি টাকা তোলা আদায়ের পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেন। এদিন দু'টি মামলাই খারিজ করে দিয়েছে লখনউয়ের বিশেষ আদালত।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in