মহামারীতেও ভারত সহ বিশ্বের কিছু ধনী ব্যক্তির সম্পদ ব্যাপক বৃদ্ধি হয়েছে - সীতারাম ইয়েচুরি

তিনি বলেন, “সরকার এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য যে ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করছে, সেগুলিও সরাসরি এই ধনকুবেরদের পকেটে চলে যাচ্ছে। এর ফলে একদিকে ক্ষুধা-মৃত্যু বাড়ছে, অন্যদিকে বাড়ছে কর্পোরেট বাজার।”
সীতারাম ইয়েচুরি ও মানিক সরকার
সীতারাম ইয়েচুরি ও মানিক সরকার ছবি - The Wire

সিপিআই(এম)-র সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেছেন যে, মহামারী চলাকালীনও কিছু সংস্থা ভ্যাকসিনের মাধ্যমে বিলিয়ন ডলার আয় করেছে। মধ্যপ্রদেশ সিপিআই(এম) -র ১৬ তম রাজ্য সম্মেলন উদ্বোধন করে, ইয়েচুরি বলেন – “বিশ্বের ধনী দেশগুলি তাদের নিজেদের এবং তাদের কোম্পানির লাভের জন্য মানবতাকে বিপন্ন করছে। এমনকি কোভিড মহামারীর সময়েও, ভ্যাকসিন থেকে পেটেন্ট রয়্যালটি কমানোর পরিবর্তে তারা এটিকে এত ব্যয়বহুল করে তুলছে যে অনেক দরিদ্র দেশ ভ্যাকসিন কিনতে পারছে না। ফলস্বরূপ এই মহামারীর সময়ে দারিদ্র্য ও বেকারত্ব ক্রমশই বেড়ে চলেছে।”

তিনি আরও বলেন, “ভারত সহ, বিশ্বের কিছু ধনী ব্যক্তির সম্পদের ব্যাপক বৃদ্ধি হয়েছে। সরকার এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য যে ত্রাণ প্যাকেজ ঘোষণা করছে, সেগুলিও সরাসরি এই ধনকুবেরদের পকেটে চলে যাচ্ছে। এর ফলে একদিকে ক্ষুধা-মৃত্যু বাড়ছে, অন্যদিকে বাড়ছে কর্পোরেট বাজার।”

তাঁর কথায় – “সমাজতান্ত্রিক দেশগুলির উপর অর্থনৈতিক অবরোধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে, যারা এই বিপর্যয় কাটিয়ে তাদের জনগণকে রক্ষা করেছে এবং নিজের অর্থনীতিকে নিয়ন্ত্রণে রেখেছে। নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন ভারত সরকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পুতুল হিসাবে সারা বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে।”

দেশের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন –“২০১৯ সালের পরে আবার ক্ষমতায় ফিরে আসার পর থেকে, মোদী সরকার ভারতের মূল ধারণার চারটি পরিচয়কে আক্রমণ করেছে। ধর্মনিরপেক্ষ গণতন্ত্র, অর্থনৈতিক সার্বভৌমত্ব, সামাজিক ন্যায়বিচার এবং ফেডারেল কাঠামোর সাথে যুক্ত কেন্দ্র-রাষ্ট্র সম্পর্ক দুর্বল করা হয়েছে।”

পাশাপাশি তিনি দাবি করেছেন – “অবৈধ গ্রেপ্তার এবং বিধিনিষেধ বেড়েছে। সাংবাদিকদের বিরুদ্ধেও রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হচ্ছে। নারী, দলিতদের উপর অত্যাচার তীব্র হয়েছে... কর্পোরেটদের জমি হস্তান্তর করে আদিবাসীদের তাদের বসতি থেকে বিতাড়িত করা হচ্ছে ... দ্রুত বেসরকারীকরণ করা হচ্ছে। রাজভবনে আরএসএস-এর লোক পাঠিয়ে রাজ্য সরকারের কাজে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে।”

সীতারাম ইয়েচুরি ও মানিক সরকার
Oxfam: মহামারীতে বিশ্বের প্রথম ১০ ধনীর সম্পদ বেড়েছে $১.৫ ট্রিলিয়ন, ১৬৩ মিলিয়ন দারিদ্র্যসীমার নীচে

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in