উন্নাও ধর্ষণ কাণ্ডে প্রাক্তন BJP MLA কুলদীপ সেঙ্গারকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিল্লি হাইকোর্টের

২০১৭ সালে উত্তর প্রদেশের উন্নাওয়ে ১৯ বছরের এক তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় কুলদীপ সিং সেঙ্গার এখন জেলে। এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগ ওঠার পরেই সেঙ্গারকে বিজেপি থেকে বহিষ্কার করা হয়।
কুলদীপ সিং সেনগার
কুলদীপ সিং সেনগারফাইল ছবি সংগৃহীত

উন্নাও ধর্ষণ কাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিং সেঙ্গারকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট। মেয়ের বিয়েতে উপস্থিত থাকার জন্য হাইকোর্টে আবেদন করেছে কুলদীপ সিং সেঙ্গার। সোমবার, সেই আবেদন মঞ্জুর করেছে বিচারপতি মুক্তা গুপ্তা (Justice Mukta Gupta) ও বিচারপতি পুনম এ বাম্বা (Justice Poonam A. Bamba)-র ডিভিশন বেঞ্চ।

উন্নাও ধর্ষণ কাণ্ডে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ভোগ করছে কুলদীপ সিং সেঙ্গার। তবে, মেয়ের বিয়েতে থাকার জন্য কুলদীপকে ২৭ জানুয়ারি থেকে ১০ ফেব্রুয়ারি (১৫ দিন) পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিয়েছে আদালত।

গত ১৯ ডিসেম্বর, মেয়ের বিয়েতে যোগ দেওয়ার জন্য আদালত থেকে দুই মাসের অন্তর্বর্তী জামিন চেয়েছিল কুলদীপ সেঙ্গার। আবেদনে তিনি জানায়, তার মেয়ের বিয়ে ২০২৩ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি। তবে, আনুষ্ঠানিক সকল কাজকর্ম শুরু হবে ১৮ জানুয়ারি থেকে।

এরপর, ২০২২ সালের ২২ ডিসেম্বর, একটি নোটিশ জারি করে দিল্লি হাইকোর্ট। তাতে সেঙ্গারের জামিনের আবেদনের সত্যতা যাচাই এবং রেকর্ডে স্ট্যাটাস রিপোর্ট উল্লেখ করার জন্য সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (CBI)-কে নির্দেশ দেয় আদালত।

সোমবার, CBI-র সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে সেঙ্গারের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে বিচারপতি গুপ্তা ও পুনম বাম্বার ডিভিশন বেঞ্চ।

২০১৭ সালে উত্তর প্রদেশের উন্নাওয়ে ১৯ বছরের এক তরুণীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত কুলদীপ সিং সেঙ্গার এখন জেলে। এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হবার পরেই সেঙ্গারকে বিজেপি থেকে বহিষ্কার করা হয়। খারিজ হয় বিধায়ক পদও।

এরপর, নির্যাতিতার বাবার রহস্য মৃত্যুর ঘটনায় যুক্ত থাকায় ২০২০ সালে সেঙ্গারকে ফের দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। তাকে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা ও ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত।

এক সাক্ষাৎকারে নির্যাতিতা তরুণী জানান, বিজেপি বিধায়ক ছিল তাঁদের পারিবারিক বন্ধু। তিনি নিজে ও তাঁর বোনেরা সেঙ্গারকে ভাই বলে ডাকতেন।

২০১৯ সালের ১৩ এপ্রিল প্রকাশিত ওই সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, 'আমায় ঘরের ভিতর যেতে বলা হয়েছিল, যে ঘরে ও (সেঙ্গার) আমায় ধর্ষণ করে। তারপর আমায় বলা হয়, যদি আমি এ নিয়ে মুখ খুলি তাহলে আমার বাবা ও পুরো পরিবারকে খুন করা হবে। আমি প্রথমে কাউকে কিছু বলিনি। এরপর ওর কিছু লোকজন আমাকে ফের অপহরণ করে। ওরা আমায় গণধর্ষণ করে আমাকে একজনের কাছে বিক্রি করে দেয়, যেখান থেকে আমায় উদ্ধার করা হয়।'

কুলদীপ সিং সেনগার
Oxfam Report: মাত্র ১% ধনীর হাতে ভারতের ৪০ শতাংশের বেশি সম্পদ!
কুলদীপ সিং সেনগার
মহুয়া-গড়ে প্রার্থীই দিতে পারলো না তৃণমূল, সমবায়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী CPIM

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in