গোরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা ও গো-রক্ষা মৌলিক অধিকার হোক, সুপারিশ এলাহাবাদ হাইকোর্টের

অভিযুক্তের জামিনের আবেদন খারিজ করে বিচারপতি বলেন, গোরু সম্পর্কে ভারতীয়দের ভাবাবেগ রয়েছে। অভিযুক্তকে জামিন দিলে সামাজিক সম্প্রীতি বিঘ্নিত হবে। মুক্তি পেলে অভিযুক্ত আবার একই অপরাধ করবে বলে মত আদালতের।
গোরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা ও গো-রক্ষা মৌলিক অধিকার হোক, সুপারিশ এলাহাবাদ হাইকোর্টের
ফাইল ছবি সংগৃহীত

গোরুকে ভারতের জাতীয় পশু ঘোষণা করা উচিত এবং এর সুরক্ষা হিন্দু সম্প্রদায়ের মৌলিক অধিকারের অংশ হওয়া উচিত। বুধবার এমনই মন্তব্য করল এলাহাবাদ হাইকোর্ট‌।

৫৯ বছরের এক মুসলিম ব‍্যক্তির জামিনের আবেদন খারিজ করে দিয়ে একথা বলেছে আদালত। গোহত‍্যার অভিযোগে চলতি বছরের মার্চ মাসে উত্তরপ্রদেশের সম্ভল জেলার বাসিন্দা ওই ব‍্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়।

এই মামলার শুনানিতে বিচারপতি শেখর কুমার যাদব তাঁর ১২ পাতার নির্দেশে বলেছেন, "বেদ, মহাভারতের মতো ভারতের প্রাচীন গ্রন্থ, যা ভারতীয় সংস্কৃতিকে সংজ্ঞায়িত করে এবং যার জন্য ভারত পরিচিত, সেখানে গোরুকে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে দেখানো হয়েছে। পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে গোরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা করা উচিত এবং গো-রক্ষা হিন্দু সম্প্রদায়ের মৌলিক অধিকারের অংশ হওয়া উচিত। কারণ আমরা জানি যখন ‌একটি দেশের সংস্কৃতি এবং বিশ্বাসে আঘাত লাগে, তখন দেশ দুর্বল হয়ে পড়ে। গোরুর ভালো হলে দেশের ভালো হবে।"

জাভেদ নামে অভিযুক্ত ব্যক্তির জামিনের আবেদন খারিজ করে বিচারপতি যাদব বলেন, গোরু সম্পর্কে ভারতীয় সমাজে ভাবাবেগ রয়েছে। অভিযুক্তকে জামিন দিলে সামাজিক সম্প্রীতি বিঘ্নিত হতে পারে। মুক্তি পেলে অভিযুক্ত আবার একই অপরাধ করবে বলে মত আদালতের।

প্রসঙ্গত, এর আগে একাধিকবার গোরুকে জাতীয় পশু ঘোষণার দাবি উঠেছে। ২০১৯ সালে হিন্দু ধর্মগুরুদের একটি সভাতে এই দাবি উঠেছিল। ২০১৭ সালে রাজস্থান হাইকোর্টের বিচারপতি মহেশ শর্মা একটা মামলার শুনানিতে গোরুকে জাতীয় পশু ঘোষণার পক্ষে সওয়াল করেছিলেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in