বন (সংরক্ষণ) আইন সংশোধনে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রস্তাবের সমালোচনায় সিপিআইএম
সিপিআই(এম) নেত্রী বৃন্দা কারাতফাইল ছবি ডিএনএ-র সৌজন্যে

বন (সংরক্ষণ) আইন সংশোধনে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রস্তাবের সমালোচনায় সিপিআইএম

বন (সংরক্ষণ) আইন ১৯৮০র প্রস্তাবিত বদলের সমালোচনা করে কম্যুনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়া (মার্ক্সবাদী) বুধবার বলেছে এই পরিবর্তন হলে শেষ পর্যন্ত বন ও বনজ সম্পদের বেসরকারিকরণের পথ প্রশস্ত হবে।

বন (সংরক্ষণ) আইন ১৯৮০র প্রস্তাবিত বদলের সমালোচনা করে কম্যুনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়া (মার্ক্সবাদী) বুধবার বলেছে এই পরিবর্তন হলে শেষ পর্যন্ত বন ও বনজ সম্পদের বেসরকারিকরণের পথ প্রশস্ত হবে।

কেন্দ্রীয় পরিবেশ মন্ত্রী ভূপিন্দর যাদবকে লেখা এক চিঠিতে সিপিআইএম নেত্রী বৃন্দা কারাত বলেছেন,পরিকাঠামো প্রকল্পের বেসরকারিকরণ হলে এর জন্য প্রয়োজনীয় বনভূমি সস্তা দরে নেওয়ার সুযোগ হয়ে যাবে কর্পোরেটদের কাছে। বন আইনে বেশ কয়েকটি বদলের প্রস্তাব নিয়ে মতামত চেয়েছে মন্ত্রক। তার দুদিন পরেই কারাতের এই চিঠি।

কারাত বলেছেন, এর ফলে দেশি বিদেশি মাইনিং কোম্পানিগুলির জন্য খনিগুলি অধিগ্রহণ করা সহজ হবে। এটিই চিঠির বক্তব্যের অন্তর্নিহিত কথা। বৃন্দা বলেছেন, এই কারণেই এর বিরোধিতা করা হচ্ছে যে এতে পরিবেশ রক্ষার থেকে বেসরকারি স্বার্থের দিকেই বেশি নজর দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও একটি বিষয়ের উল্লেখ করেছেন। সেটি হল কোন অরণ্য নিয়ে রাজ্যের বিজ্ঞপ্তি জারির ক্ষমতা খর্ব করা হয়েছে প্রস্তাবে, ফলে কেন্দ্রের হাতে আরও ক্ষমতা কেন্দ্রীভূত হবে।

অরণ্য, সংরক্ষিত অরণ্য, প্রস্তাবিত অরণ্যের সংজ্ঞা বদলের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে প্রস্তাবে। যাতে সহজে অরণ্যের চরিত্র বদল করা যায়। এতে আদিবাসী, বনবাসীদের ওপর কী প্রভাব পড়তে পারে তা বলা হয়নি। কারাতের অভিযোগ, আদিবাসী ও বনবাসীদের আইনি অধিকার রক্ষার বিষয়ে প্রস্তাবে উচ্চবাচ্য করা হয়নি।

তিনি আরও বলেছেন, বর্তমান কাঠামোর উদারীকরণে বনভূমিকে কোন বিধি না মেনেই অন্য কাজে ব্যবহার করা সহজ হবে। এর ফলে শেষ পর্যন্ত বন ও বনজ সম্পদের বেসরকারিকরণ হয়ে যাবে।

সংবাদ মাধ্যমেও প্রকাশিত এই চিঠিতে বলা হয়েছে ঢালাও অনুমতি না দিয়ে যদি একান্তই দরকার পড়ে তাহলে বিশেষজ্ঞ কমিটির মাধ্যমে প্রতিটি প্রস্তাব যাচাই করে অনুমতি দেওয়া যেতে পারে।

কারাত যাদবের কাছে এই প্রস্তাব নিয়ে না এগনোর আর্জি জানিয়েছেন। তাঁর মতে এই প্রস্তাব বেসরকারি স্বার্থ রক্ষা ছাড়া কিছু নয়। আদিবাসী, বনবাসী এবং পরিবেশের স্বার্থ রক্ষায় কিছু বলা হয়নি।

- with Agency inputs

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.