Congress: শুরু হল কংগ্রেসের 'নব সঙ্কল্প চিন্তন শিবির' - হারানো জমি ফিরে পেতে একাধিক পরিকল্পনা

শুক্রবার সকাল থেকে উদয়পুরে শুরু হয়েছে কংগ্রেসের ‘চিন্তন শিবির’। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে এই চিন্তন শিবিরের মাধ্যমে কংগ্রেসে এক বড়ো সাংগঠনিক পুনর্গঠন হতে চলেছে।
Congress: শুরু হল কংগ্রেসের 'নব সঙ্কল্প চিন্তন শিবির' - হারানো জমি ফিরে পেতে একাধিক পরিকল্পনা
কংগ্রেসের 'নব সঙ্কল্প চিন্তন শিবির'-এ পৌঁছলেন সোনিয়া গান্ধীছবি আইএনসি ট্যুইটার হ্যান্ডেলের সৌজন্যে

শুক্রবার সকাল থেকে উদয়পুরে শুরু হয়েছে কংগ্রেসের ‘নব সঙ্কল্প চিন্তন শিবির’। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে এই চিন্তন শিবিরের মাধ্যমে কংগ্রেসে এক বড়ো সাংগঠনিক পুনর্গঠন হতে চলেছে। তিন দিনের এই চিন্তন শিবিরে সাংগঠনিক সংস্কারের এজেন্ডা রাখা হয়েছে। যা নিয়ে তিন দিন ধরে আলোচনা করা হবে এবং শিবির থেকে উঠে আসা সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে।

কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অজয় ​​মাকেন জানিয়েছেন, "আমাদের বিরোধীরা নতুন জিনিস দ্রুত গ্রহণ করতে সক্ষম হয়েছে। এই শিবিরের পরে আমাদের দল পরিবর্তন দেখতে পাওয়া যাবে।"

কংগ্রেস নেতৃত্বের সমন্বয়ে একটি মূল্যায়ন শাখা তৈরি করা হবে, যা পারফরম্যান্স অনুসারে কাউকে পুরস্কৃত করবে অথবা অপসারণ করবে। অন্য এক গোষ্ঠীর অন্যতম দাবি করেছে যে এখন নির্বাচনে পরাজয়ের জন্য কাউকে দায়ী করা হয় না।

কংগ্রেস সূত্রে জানা গেছে, কোনো পদাধিকারী পাঁচ বছরের বেশি পদে থাকতে পারবেন না এবং পাঁচ বছর পূর্ণ হয়ে গেলে সেই ব্যক্তিকে পদত্যাগ করতে হবে। সেই ব্যক্তিকে পরবর্তী পদ দেবার আগে তিন বছরের দলের অন্য কাজ করতে হবে।

আরও জানা গেছে, দলের পক্ষ থেকে একটি পাবলিক ইনসাইট উইং তৈরি করা হবে, যারা একটি অভ্যন্তরীণ সমীক্ষক দল হিসেবে কাজ করবে এবং দলের সমস্যা সম্পর্কে নতুন জানতে প্রতিদিন সমীক্ষা করবে। সমস্ত কমিটিতে ৫০ শতাংশ কর্মকর্তা থাকবেন, যাদের বয়স ৫০ বছরের কম হবে।

এছাড়াও দল প্রতি ২০টি বুথে মন্ডল কমিটি করা হবে এবং প্রতিটি ব্লকে পাঁচ থেকে দশটি মন্ডল কমিটি থাকবে। এখন থেকে দলে ‘এক পরিবার এক টিকিট’ দাবির ক্ষেত্রে যারা পাঁচ বছর দলে কাজ করেছেন তাদেরই অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। তবে, নির্বাচনের প্রক্রিয়া চলছে বলে কংগ্রেস দলীয় সভাপতিত্বের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবে না।

আজ থেকে শুরু হয়েছে কংগ্রেসের তিনদিনের 'চিন্তন শিবির'। দুপুর ১২টায় অধিবেশন শুরু হয়েছে এবং আনুষ্ঠানিক বৈঠক শুরু হলে সোনিয়া গান্ধী দুপুর ২টায় অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছেছেন বলে জানা গেছে।

কংগ্রেসের অন্তর্বর্তী সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী কৃষক, অর্থনীতিজ্ঞ, সংগঠক, যুব ও সামাজিক ন্যায়বিচারের জন্য তৈরি করা বিভিন্ন দলের সামনে এক সমাবেশে ভাষণ দেবেন।

আগামী দু’দিনের মধ্যে এই দলগুলি তাদের আলোচনা শেষ করবে এবং CWC দ্বারা গৃহীত একটি খসড়া রেজোলিউশন তৈরি করবে। রবিবার, শেষ দিনে বক্তৃতা দেবেন সোনিয়া গান্ধী এবং রাহুল হবেন দ্বিতীয় শেষ বক্তা।

কংগ্রেস জানিয়েছে, উদয়পুর "আশা, আকাঙ্ক্ষা এবং পরিবর্তনের একটি নতুন মাইলফলক হবে। কারণ ভারত তার গণতন্ত্র, অর্থনীতি এবং সামাজিক সম্প্রীতির উপর একটি পীড়াদায়ক এবং ভয়ঙ্কর আক্রমণ সহ্য করছে"।

কংগ্রেসের 'নব সঙ্কল্প চিন্তন শিবির'-এ পৌঁছলেন সোনিয়া গান্ধী
Congress: ইস্তফা কমলনাথের, 'চিন্তন শিবির'-এর পরেই 'এক ব্যক্তি এক পদ' নীতিতে ফিরছে কংগ্রেস

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.