কোভিডে মৃত পোলিং অফিসারদের ক্ষতিপূরণ কমপক্ষে ১ কোটি টাকা হওয়া উচিৎ : এলাহাবাদ হাইকোর্ট

"আরটিপিসিআর টেস্ট করানো ছাড়াই রাজ্য ও রাজ্য নির্বাচন কমিশন ইচ্ছাকৃতভাবে এইসব কর্মীদের নির্বাচনের কাজে পাঠিয়েছিল"
কোভিডে মৃত পোলিং অফিসারদের ক্ষতিপূরণ কমপক্ষে ১ কোটি টাকা হওয়া উচিৎ : এলাহাবাদ হাইকোর্ট
এলাহাবাদ হাইকোর্ট ফাইল ছবি সংগৃহীত

পঞ্চায়েত নিবার্চনে ডিউটি দিতে গিয়ে কোভিডের কারণে প্রাণ হারানো কর্মীদের ক্ষতিপূরণে পরিমাণ নিয়ে পুনরায় চিন্তা করা দরকার উত্তরপ্রদেশ সরকারের। মঙ্গবার এলাহাবাদ আদালতের তরফে জানানো হয়েছে, এই পোলিং অফিসারদের মৃত্যুতে ক্ষতিপূরণ বাবদ কমপক্ষে ১ কোটি টাকা দেওয়া উচিত।

আদালত জানিয়েছে, যে ৩০ লাখ টাকার ক্ষতিপূরণে কথা সরকার নির্ধারণ করা হয়েছে, তা একটি স্বজন হারানো পরিবারের কাছে কিছুই নয়। আরটিপিসিআর টেস্ট করানো ছাড়াই রাজ্য ও রাজ্য নির্বাচন কমিশন ইচ্ছাকৃতভাবে এইসব কর্মীদের নির্বাচনের কাজে পাঠিয়েছিল। গত ৭ মে রাজ্য সরকার পোলিং অফিসারদের মৃত্যুতে ৩০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা আদালতে জানায়।

রাজ্যের তরফে আইনজীবী তরুণ আগরওয়াল বলেন, ২৮টি জেলায় মোট ৭৭ জন পোলিং অফিসারের মৃত্যু হয়েছে। অন্যান্য জেলা থেকে রিপোর্ট আসা এখনও বাকি। অন্যদিকে, পোলিং অফিসারদের পরিবারের তরফের আইনজীবীরা আদালতে জানান, রাজ্য সরকারের নির্ধারিত ক্ষতিপূরণ খুবই অল্প। কোভিড পরিস্থিতির কথা ভালো করে জানতে রাজ্য ও রাজ্য নির্বাচন কমিশন। কিন্তু তা সত্ত্বেও শিক্ষক, শিক্ষামিত্রদের জোর করে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে পাঠানো হয়েছিল।

জনস্বার্থ মামলাটির শুনানি চলাকালীন চলাকালীন বিচারপতি সিদ্ধার্থ বর্মা এবং অজিত কুমার নির্দেশ দেন, রাজ্যের প্রত্যেক জেলায় 'প্যানডেমিক পাবলিক গ্রিভেন্স কমিটি' গঠন করতে। যাতে মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট বা বিচারবিভাগীয় অফিসার পদের কাউকে বিচারপতি হিসেবে রাখা হোক।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in