Chhattisgarh: IPS অফিসারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা দায়ের পুলিশের

১ সপ্তাহ আগে আয় বহির্ভূত সম্পত্তি থাকার অভিযোগে IPS অফিসারের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিল অ‍্যান্টি করাপশন ব‍্যুরো (ACB) এবং ইকোনমিক অফেন্সেস উইং (EOW)। এর জেরে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয় তাঁকে
Chhattisgarh: IPS অফিসারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা দায়ের পুলিশের
আইপিএস অফিসার জি পি সিংফাইল ছবি সংগৃহীত

এক আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা দায়ের করলো ছত্তিশগড় পুলিশ। জি পি সিং নামের ওই আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে বর্তমান প্রতিষ্ঠিত সরকার ও জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে শত্রুতা ছড়ানো এবং ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ রয়েছে।

এক সপ্তাহ আগেই আয় বহির্ভূত সম্পত্তি থাকার অভিযোগে আইপিএস অফিসারের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিল অ‍্যান্টি করাপশন ব‍্যুরো (ACB) এবং ইকোনমিক অফেন্সেস উইং (EOW)। এর জেরে তখনই চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছিল তাঁকে। পুলিশ জানিয়েছে, অ‍্যাডিশনাল ডিরেক্টর জেনারেল র‍্যাঙ্কের এই অফিসারের বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া কাগজপত্র থেকে জানা গেছে বর্তমান সরকার ও জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার চেষ্টা করছেন তিনি।

রায়পুরের SSP (Senior Superintendent of Police) জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাতে রায়পুরের কোতোয়ালি থানায় জি পি সিং-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ভারতীয় দন্ডবিধির ১২৪-এ (দেশদ্রোহ), ১৫৩-এ (ধর্ম, বর্ণ, জন্মস্থান, বাসস্থান, ভাষা ইত‍্যাদির ভিত্তিতে বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে শত্রুতা ছড়ানো) ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

ACB/EOW কর্তৃক চালানো তল্লাশি অভিযানের জেরে যে কাগজপত্র উদ্ধার হয়েছে জে পি সিং-এর বাড়ি থেকে, তার ভিত্তিতে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে আরো তদন্ত চলছে।

গত ১ থেকে ৩ জুলাই পর্যন্ত জে পি সিং-এর সাথে সম্পর্কিত প্রায় ১৫টি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালিয়েছে ACB এবং EOW। তারা জানিয়েছে, এই আইপিএস অফিসারের নামে প্রায় ১০ কোটি টাকার স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তির হদিস পাওয়া গেছে।

FIR-এ বলা হয়েছে, রায়পুরের পেনশন বড়ায় অবস্থিত জি পি সিংয়ের সরকারি বাসভবনে অভিযান চালানোর সময় তাঁর বাড়ির পেছন থেকে কিছু ছেঁড়া কাগজের টুকরো পাওয়া যায়। টুকরোগুলোকে পুনরায় সাজালে এতে কিছু গুরুতর ও সংবেদনশীল বিষয়বস্তু লেখা ও টাইপ করা অবস্থায় দেখা যায়।

FIR-এ বলা হয়েছে, "এই কাগজগুলোতে ষড়যন্ত্রের বিস্তারিত পরিকল্পনার পাশাপাশি প্রথম সারির রাজনৈতিক দলের নেতাদের বিরুদ্ধে আপত্তিজনক মন্তব্য লেখা রয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্রের প্রতিনিধি এবং প্রার্থী সম্পর্কিত গোপন মূল্যায়ন ও সংশ্লিষ্ট এলাকার গুরুতর বিষয় নিয়ে মতামতও লেখা রয়েছে। বেশ কয়েকটি সরকারি প্রকল্প, সামাজিক ও ধর্মীয় বিষয় নিয়ে সমালোচনামূলক মন্তব্যও লেখা রয়েছে কাগজে।"

১৯৯৪ ব‍্যাচের এই আইপিএস অফিসার এর আগে ACB এবং EOW-র ADG ছিলেন। গত ৫ জুলাই তাঁকে বরখাস্ত করার আগে রাজ‍্য পুলিশ একাডেমির ডিরেক্টর পদে নিয়োগ ছিলেন।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in