সম্বিৎ পাত্রের টুইটে 'ম্যানিপুলেটেড মিডিয়া' ট্যাগে আপত্তি কেন্দ্রের, ট‍্যাগ তোলার দাবি টুইটারের কাছে
ছবি প্রতীকী সংগৃহীত

সম্বিৎ পাত্রের টুইটে 'ম্যানিপুলেটেড মিডিয়া' ট্যাগে আপত্তি কেন্দ্রের, ট‍্যাগ তোলার দাবি টুইটারের কাছে

সূত্রের খবর, ইলেকট্রনিকস ও ইনফরমেশন টেকনোলজি মন্ত্রকের তরফ থেকে ট‍্যুইটারের কাছে অভিযোগ জাননো হয়েছে। কেন্দ্রের দাবি ইতিমধ্যেই এই টুলকিট ট‍্যুইট নিয়ে অভিযোগ জমা পড়েছে।

বিজেপি নেতাদের ট‍্যুইটে "ম‍্যানিপুলেটেড মিডিয়ার" ট‍্যাগ দেওয়ায় ট‍্যুইটার কর্তৃপক্ষের ওপর ক্ষুব্ধ কেন্দ্র সরকার। শুধু তাই নয়, সরকারের তরফ থেকে জনপ্রিয় এই মাইক্রোব্লগিং সাইটকে চিঠি লিখে এই বিষয়ে অভিযোগও জানানো হয়েছে।

সূত্রের খবর, ইলেকট্রনিকস ও ইনফরমেশন টেকনোলজি মন্ত্রকের তরফ থেকে ট‍্যুইটারের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। কেন্দ্রের দাবি ইতিমধ্যেই এই টুলকিট ট‍্যুইট নিয়ে অভিযোগ জমা পড়েছে এবং স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থা তদন্ত চালাচ্ছে।

সূত্রের খবর, কেন্দ্রের অভিযোগ, টুলকিটটির সত‍্যতা নির্ণয়ের জন্য স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার তদন্ত চলাকালীনই ট‍্যুইটার একতরফাভাবে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং ট‍্যুইটে ম‍্যালিপুলেটেড মিডিয়ার ট‍্যাগ দিয়েছে। ট‍্যুইটারের এই কাজ পক্ষপাতদুষ্ট, অপরাধ না শুনেই অভিযুক্তকে শাস্তি দেওয়ার মতো। স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার তদন্তকে ইচ্ছাকৃতভাবে বদনাম করার একটি প্রচেষ্টা। মন্ত্রক ট‍্যুইটারের এই পদক্ষেপকে একটি সুষ্ঠু তদন্ত প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করার প্রচেষ্টা হিসেবে অভিহিত করেছে।

ট‍্যুইটারের কাছে বিজেপি নেতাদের ট‍্যুইট থেকে "ম‍্যানিপুলেটেড মিডিয়ার" ট‍্যাগ তুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে সরকার।

ট‍্যুইটার কর্তৃপক্ষ ভারত সরকারের এই পদক্ষেপের কোনো প্রতিক্রিয়া দেয়নি এখনও।

প্রসঙ্গত, বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্রের ট‍্যুইটে "ম‍্যানিপুলেটেড মিডিয়ার" ট‍্যাগ দিয়েছে ট‍্যুইটার কর্তৃপক্ষ। ম‍্যানিপুলেটেড মিডিয়া বা কারসাজি করা মিডিয়ার অর্থ ওই ট‍্যুইটের বক্তব্যের সত‍্যতা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। গত ১৮ মে একটি ট‍্যুইট করেছিলেন সম্বিত পাত্র। যেখানে তিনি অভিযোগ করেছিলেন, করোনা মহামারীকে কাজে লাগিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চাইছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। কংগ্রেসের তরফ থেকে তাদের কর্মীদের করোনার নতুন প্রজাতিকে "মোদী স্ট্রেন" বলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিদেশি মিডিয়াকে ব‍্যবহার করে ভারতকে বদনাম করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে প্রমাণ হিসেবে কংগ্রেসের প্রতীক দেওয়া একটি বিজ্ঞপ্তির ছবি ট‍্যুইটারে পোস্ট করেন তিনি। তাঁর করা এই ট‍্যুইট একাধিক বিজেপি নেতা পোস্ট করেন।

কংগ্রেস এই ট‍্যুইটকে ভুয়ো বলে দাবি করে। তাদের অভিযোগ, নিজেদের ব‍্যর্থতা ঢাকতে কংগ্রেসের লেটারহেড জাল করে তাতে কিছু ভুয়ো তথ্য লিখে প্রচার করছে বিজেপি। এই বিষয়ে ট‍্যুইটার কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগও জানায় কংগ্রেস। এরপরই পাত্রের ট‍্যুইটে ম‍্যানিপুলেটেড মিডিয়ার ট‍্যাগ দেয় ট‍্যুইটার।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in