Tripura: ডেইলি দেশের কথা সহ ৫ মিডিয়া হাউসে হামলার অভিযোগ BJP-র বিরুদ্ধে, আহত একাধিক সাংবাদিক

PB 24, প্রতিবাদী কলম, কলমের শক্তি, ডেইলি দেশের কথা, দুরন্ত টিভি - এই পাঁচটি মিডিয়া হাউসে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে।
Tripura: ডেইলি দেশের কথা সহ ৫ মিডিয়া হাউসে হামলার অভিযোগ BJP-র বিরুদ্ধে, আহত একাধিক সাংবাদিক
জ্বলছে বাড়ি-গাড়ি, ক্ষতিগ্রস্থ অফিসছবি সংগৃহীত

সিপিআইএমের পার্টি অফিসগুলোতে হামলা চালানোর পর এবার ত্রিপুরার পাঁচটি দৈনিক সংবাদপত্র অফিসে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগের অভিযোগ উঠলো বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে। একাধিক সাংবাদিক আহত হয়েছেন এই হামলায়। এককথায় বুধবার অভূতপূর্ব সহিংসতার সাক্ষী থেকেছে গোটা ত্রিপুরাবাসী।

PB 24, প্রতিবাদী কলম, কলমের শক্তি, ডেইলি দেশের কথা, দুরন্ত টিভি - এই পাঁচটি মিডিয়া হাউসে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে।

প্রতিবাদী কলমের এডিটর এবং পাবলিশার অনল রায় চৌধুরী পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন এই বিষয়ে। অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, আগরতলায় প্রতিবাদী কলমের অফিসে ঢুকে সমস্ত নথি, সরঞ্জাম নষ্ট করে দিয়েছে বিজেপি কর্মীরা। চত্বরে থাকা গাড়ি, বাইকে আগুন লাগিয়ে দিয়েছে। প্রায় ৩০ মিনিট ধরে অফিসে হামলা চালানো হয়েছে।

এফআইআরে বলা হয়েছে, "লাঠি-ধারালো অস্ত্র নিয়ে অফিসে হামলা চালানো হয়েছে। এই হামলায় কমপক্ষে চারজন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। প্রসেনজিৎ সাহা নামের আমাদের এক সাংবাদিকের মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেছে দুষ্কৃতিরা। গুরুতর আহত হয়েছেন তিনি। সমস্ত কাগজপত্র, ডকুমেন্টস নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। কম্পিউটার, সিসি ক্যামেরা ভেঙে দেওয়া হয়েছে। একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে নীরব দর্শকের মতো উপস্থিত ছিলেন। হামলা চলাকালীন কিছুই করেনি তাঁরা।"

সংবাদমাধ্যমের সামনে রায়চৌধুরী জানিয়েছেন, এই হামলা বিজেপির পূর্ব পরিকল্পিত। বিজেপি নেতা টিঙ্কু রয়, পাপিয়া দত্ত এবং রাজিব ভট্টাচার্যকে এই ঘটনার জন্য দায়ী করেছেন তিনি। মিডিয়া হাউসের ওপর এরকম ভয়ঙ্কর, বিপজ্জনক এবং সহিংস হামলা এর আগে ত্রিপুরাতে কখনো হয়নি বলে দাবি করেছেন তিনি।

আগরতলা প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারি প্রণব সরকার সহ একাধিক মিডিয়া সংগঠন, সিনিয়র সাংবাদিক, সম্পাদকরা এই হামলার তীব্র নিন্দা করেছেন এবং অভিযুক্তদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন। প্রতিবাদী কলমের অফিসেও যান তাঁরা।

পুলিশ অফিসারদের সাথে দেখা করার পর প্রণব সরকার জানিয়েছেন, "পুলিশ যদি ১২ ঘন্টার মধ্যে হামলাকারীদের গ্রেফতার না করে, তাহলে ন‍্যায়বিচার পেতে ব‍্যাপক আন্দোলনে নামবো আমরা। সরকারকে অবশ্যই এই হামলার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।"

ডেইলি দেশের কথার অফিসে হামলা চালানোর পাশাপাশি অফিসের বাইরে থাকা ১৪টি গাড়িতে আগুন লাগানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে।

গতকাল আগরতলায় সিপিআইএমের রাজ‍্য পার্টি অফিস সহ একাধিক জেলা কার্যালয়েও হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে শাসকদলের কর্মীদের বিরুদ্ধে। রাতেও একাধিক নেতার বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে। আগরতলায় বিজেপি কর্মীদের একটি মিছিলের পরই এই সহিংসতা ছড়ায়। কর্মীদের পাশাপাশি নেতারাও এই হামলার সাথে জড়িত ছিলেন বলে জানা গেছে।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

Related Stories

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in