Bihar: নীতিশের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ, দলিত IAS অফিসারের পাশে জোট শরিক জীতেন রাম মাঝি

১৯৮৭ সালের ব্যাচের আইএএস অফিসার সুধীর কুমার নিয়োগ দুর্নীতির দায়ে তিন বছর জেল খেটেছিলেন। জামিন পেয়েই প্রকাশ্যে তিনি বলেন, নীতিশ কুমারের বিরুদ্ধে তিনি ষড়যন্ত্র করার দায়ে এফআইআর দায়ের করতে চান।
Bihar: নীতিশের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ, দলিত IAS অফিসারের পাশে জোট শরিক জীতেন রাম মাঝি
নীতিশ কুমার, জীতেন রাম মাঝিফাইল চিত্র

বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার ও আরও ২১ জন প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করতে চান দলিত আইএএস অফিসার সুধীর কুমার। কিন্তু গত ৪ দিন ধরে চেষ্টা করেও অভিযোগ দায়ের করা সম্ভব হচ্ছে না। অবশেষে ওই আইএএস অফিসারকে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে এলেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা জেডি(ইউ) শরিক জীতেন রাম মাঝি। তিনি চান, আইএএস অফিসারের অভিযোগ দায়ের করুক পুলিশ। জানা গিয়েছে, সুধীর কুমার শনিবার পাটনার এসসি-এসটি পুলিশ স্টেশনে ৩৬ পাতার একটি অভিযোগ দায়ের করতে যান। কিন্তু, পুলিশ সেই অভিযোগ দায়ের করতে রাজি হয়নি।

১৯৮৭ সালের ব্যাচের আইএএস অফিসার সুধীর কুমার নিয়োগ দুর্নীতির দায়ে তিন বছর জেল খেটেছিলেন। গত বছর সুপ্রিম কোর্ট সুধীর কুমারকে জামিনের নির্দেশ দেয়। জামিন পেয়েই প্রকাশ্যে তিনি অভিযোগ করেন, মিথ্যা মামলা দিয়ে তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। আর এজন্য মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমারের বিরুদ্ধে তিনি ষড়যন্ত্র করার দায়ে এফআইআর দায়ের করতে চান। এছাড়াও তাঁর জীবন সংশয় রয়েছে বলেও পুলিশি নিরাপত্তার আবেদন করেছেন তিনি।

রাজ্যে এনডিএ শরিক হয়েও সুধীর কুমারের সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন জীতন রাম মাঝি। উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে যাওয়ায় পুলিশ এখনও নিস্ক্রিয়। যা সত্যিই চিন্তার বিষয়। পুলিশ যদি একজন আইএএস অফিসারের অভিযোগই না নিতে চায়, তাহলে সাধারণ মানুষের অবস্থা ঠিক কী? রাজ্যের যে আইন ব্যবস্থার বড়াই করে সরকার, পরিস্থিতি এরকমটা হলে সেই দাবির বিরোধিতাই করা উচিৎ।

পুলিশের কাজই হচ্ছে অভিযোগ দায়ের করা। সুধীর কুমারকে এভাবে ফিরিয়ে দেওয়া কখনই ঠিক নয়। উল্লেখ্য, দলিত আমলা সুধীর কুমারের সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন মাঝিই প্রথম। যদিও এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত চুপ করে রয়েছে নীতিশের অন্যতম শরিক বিজেপি।

GOOGLE NEWS-এ আমাদের ফলো করুন

No stories found.
People's Reporter
www.peoplesreporter.in